কল্যাণী বিশ্ববিদ্যালয়ে আরবী ভাষা সাহিত্য চালু করার দাবিতে ডেপুটেশন দিল ভাষা রক্ষা কমিটি

আলি আকবর, টিডিএন বাংলা, কল্যাণী : কল্যাণী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিনস্ত সমস্ত কলেজে স্নাতকে ও বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতকোত্তরে আরবী ভাষা সাহিত্য চালু করার দাবিতে উপাচার্যকে ডেপুটেশন দিল পশ্চিমবঙ্গ ভাষা রক্ষা কমিটি। পশ্চিমবঙ্গ ভাষা রক্ষা কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুল ওহাব ও ইলিয়াস বলেন ‘২০০৮ সাল থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিনস্ত বেশ কিছু কলেজে স্নাতক স্তরে আরবী ভাষা সাহিত্য পড়ানো হয় কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতকোত্তর স্তরে এই বিষয় না থাকায় ছাত্ররা উচ্চ শিক্ষা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।

 

 

 

 

তাই আমরা আজ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের হাতে বেশ কিছু দাবি তুলে ধরেছি।’
আন্দোলনকারীদের উল্লেখযোগ্য দাবি গুলি হলো-
১) অবিলম্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতকোত্তর স্তরে আরবী ভাষা সাহিত্য চালু করতে হবে। ২) বিশ্ববিদ্যালয়ে আরবী ভাষা সাহিত্যের স্থায়ী শিক্ষক নিয়োগ করতে হবে।
৩) আরবী ভাষা সাহিত্যে এমফিল ও পিএইচডি চালু করতে হবে।
৪) বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিনস্ত সমস্ত কলেজে স্নাতকে আরবী ভাষা সাহিত্য চালু করতে হবে ও এই বিষয়ের স্থায়ী শিক্ষক নিয়োগ করতে হবে।
এদিন ডেপুটেশনে প্রতিনিধি দলে ছিলেন আব্দুল ওহাব, নজরুল ইসলাম, রাজাউল্লাহ সহ অন্যান্যরা।