রোহিঙ্গাদের বিষয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের ঘোষণা মানবতা বিরোধী : সুকৃতি রঞ্জন বিশ্বাস

নিজস্ব সংবাদদাতা, টিডিএন বাংলা, কলকাতা : রোহিঙ্গাদের বিষয়ে কেন্দ্রীয় সরকার যে  ঘোষণা দিয়েছে তা মানবতা বিরোধী বলে মন্তব্য করলেন উদ্বাস্তু নেতা ও লেখক সুকৃতি রঞ্জন বিশ্বাস।

শান্তি-সম্প্রীতি মঞ্চের ওই নেতার মন্তব্য, “রোহিঙ্গারা বিদেশি নয়, ভূমিপুত্র। তারা সন্ত্রাসী নয়, সাধারণ মানুষ। রাখাইনে শুধু মুসলমানদের উপর নির্যাতন হচ্ছে না, সেখানে মানুষের উপর বর্বর নির্যাতন হচ্ছে, মানবতাকে খুন করা হচ্ছে, তাই হিন্দু মুসলমান সবাইকে এই গণহত্যা ও দেশ থেকে রোহিঙ্গাদের বিতাড়নের বিরোধিতায় সরব হতে হবে। প্রাচীনকাল থেকে ভারত বহু বিদেশি জাতি, ধর্ম, ভাষাভাষী ও বর্ণের মানুষকে বুকে ধারণ করেছে। স্বাধীনতার পর অনেকগুলি নানা পার্টির সরকার হয়েছে। সেই সরকার ও দেশবাসী আফগানিস্তান, পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীর, তিব্বত, শ্রীলংকা, পাকিস্তান, বাংলাদেশ থেকে আগত নানা ধর্মের অসহায় উদ্বাস্তু মানুষকে আশ্রয় দিয়েছে, পাশে দাঁড়িয়েছে। ব্যতিক্রম দেশের বর্তমান সরকার। কেন্দ্রীয় সরকারের ঘোষণা মানবতা বিরোধী, এই সরকার দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করেছে। আক্রান্ত ও অসহায় মানুষের বিরোধিতা করা বর্বরতা। এই রকম এক শক্তিকে ক্ষমতায় বসানো দেশের মানুষের এক চরম ভুল – যা আগামীদিনে সংশোধন করতে হবে, সরকারকে নীতি পাল্টাতে বাধ্য করতে হবে। সরকারের সহযোগিতা ছাড়াও জনগণকে ত্রাণের কাজে হাত লাগাতে হবে, ত্রাণ সাহায্য নিয়ে এগিয়ে আসতে হবে।”