তৃণমূলের পুরোহিত সম্মেলনের পাল্টা বিজেপির সংখ্যালঘু মোর্চার সভা, হলোনা ভীড়

টিডিএন বাংলা ডেস্কঃ সামনে পঞ্চায়েত ভোটকে লক্ষ্য করেই কোমর বেঁধে ময়দানে রাজ্য বিজেপি। তৃনমূলের হিন্দুত্ব পুরোহিত সম্মেলনের পরই এবার পাল্টা রাজ্য বিজেপির সংখ্যালঘু মোর্চা সম্মেলন।

রাজ্যের সংখ্যালঘু মানুষের ভোট ব্যাংক ও মন জেতার জন্যই বৃহস্পতিবার তাদের সংখ্যালঘু মোর্চার সভা করল বিজেপি। রাজ্য বিজেপি দফতর থেকে শুরু হয়ে ওয়াই চ্যানেল পর্যন্ত চলে এই মিছিল। বিজেপির সংখ্যালঘু সেলের সর্বভারতীয় সভাপতি রহিম আনসারী থেকে শুরু করে রাজ্য বিজেপির দিলীপ ঘোষ, মুকুল রায় সহ উপস্থিত ছিলেন সদ্য বিজেপিতে যোগদানকারী একাধিক মুখ। বাদ পড়েননি তিন তালাক মামলায় জয়ী ইসরাত জাহান ও তাঁর আইনজীবী নাজিয়া ইলাহী খান। মূলত এদের সামনে রেখেই রাজ্যের সংখ্যালঘুদের টানতে চেষ্টা করছে বিজেপি। কিন্তু এদিনের সভায় লোক হলোনা তেমন, ফাঁকা পড়ে রইল একাধিক চেয়ার।

সংখ্যালঘু সেলের এই সভায় জাত-ধর্ম ছেড়ে বিজেপির একমাত্র হাতিয়ার ছিল উন্নয়ন বলে দলটির দাবী। সভা শুরুতেই দিলীপ ঘোষ বলেন , “মাইনোরিটি মোর্চা, তাও আবার বিজেপির। শুনলেই মনে হয় জিনিসটা আবার কী। তাই অনেকেই দেখার জন্য এসেছেন।”

এইরকম বিতর্কিত মন্তব্যের কোন ব্যাখ্যা দেন নি দিলীপ ঘোষ। বিজেপির দাবি তারা হিন্দুত্ববাদী দল হলেও, সংখ্যালঘুদের কথা ভাবে। তারই ফলস্বরূপ দলের এই সংখ্যালঘু সেল। কিন্ত বিরোধীরা তা মানতে নারাজ।

এই সভা থেকে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকেও তোপ দেগে দিলীপ দাবি করেন, বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলিতে সংখ্যালঘুরা ভালো আছেন। কিন্তু এরাজ্যে মুসলিমদের বোকা বানাচ্ছেন তৃনমূল নেত্রী। তিনি আরও বলেন, গুজরাটে মুসলিমরা অনেক বেশি উন্নত, তাঁদের মধ্যে অনেকেই কারখানার মালিক, BMW গাড়িও চড়েন। তাই সংখ্যালঘুরাও দলে দলে বিজেপিতে যোগ দিচ্ছে।