পদ্মা ভাঙন রুখতে, সম্পূর্ণ নতুন পদ্ধতিতে ভাঙন রোধ করায় চেষ্টা সফল

খাইরুল সেখ,টিডিএন বাংলা, রঘুনাথগঞ্জ-২ : মিঠিপুর গ্রাম পঞ্চায়েত, রাইচক বোলতলা গ্রাম পদ্মা তীরবর্তীতে  অবস্থান হওয়ায় প্রতিবছর পদ্মা ভাঙন দেখা যায়। যার ফলে এলাকাবাসী কে  খুব চিন্তার মধ্যে পড়তে হয়। এই রকম পরিস্থিতিতে গত বছর সম্পূর্ণ এক নতুন পদ্ধতিতে পদ্মা ভাঙন রোধ করার চেষ্টা করা হয়। বড়ো  বড়ো ছয়টি খাম্বা জোড় করে, ত্রিভুজ আকার করে পাথর ও তার দিয়ে বেঁধে রাখা হয়।ইঞ্জিনিয়াররা আশ্বাস দিয়েছিলেন যে, নদিতে জল পূর্ণ হলে তার তীরবর্তী তে পলি জমে  তীরবর্তী কে উঁচু করবে এবং স্রোত কে দুরে সরিয়ে দিবে।

যা এলাকা বাসির কাছে বিশ্বাস যোগ্য না হলেও  বছর পেরানোর পর এখন তা মিলে যাচ্ছে। নদির তীরে পলি জমেছে এবং স্রোত কিছুটা পরিবর্তন করা সম্ভব হয়েছে। গ্রামবাসীরা এতে খুশি কিন্তু একটাই সরকারের কাছে আবেদন যদি কোন অবস্থায় আবার পদ্মা ভাঙন দেখা যায় তা হলে যেন অতি সত্তর নিবারনের জন্য ব্যবস্থা গ্রহন করেন।