পার্থপ্রতিম বিশ্বাস (আইনজীবী), টিডিএন বাংলা : সরকারী বেসরকারী সম্পত্তি নষ্টের পালেরগোদারা যখন বিধানসভায় বিল এনে ওই বিষয়ে জরিমানা ধার্যের আইন চালু করলো ঠিক তখনই তাদের হাতে প্রথম আহত হলেন বিরোধী দলনেতা আব্দুল মান্নান। তার বুকে পেসমেকার বসছে। বিরোধী দলনেতাকে কে দেবে জরিমানা ?
এবার চলুন উন্নয়নের বাংলা ভ্রমনে। উত্তরের ইসলামপুরে তৃনমূলেরই দুই ছাত্রগোষ্ঠী তিনঘন্টা ধরে মারপিঠ ও কলেজ ভাঙচুর করলো। ঘটনার জেরে কলেজের অধ্যক্ষ নিজেই ইস্তফা দিতে চাইলেন। পুলিশ কাঁদনে গ্যাস এবং গুলিও ছুঁড়লো। ঘটনার পেছনে ওদের প্রাক্তন মন্ত্রী, বিধায়ক সকলেই যুক্ত। এবার নিশ্চই জরিমানা ধার্য হবে।
ওদিকে দক্ষিনের ভাঙড়ে পাওয়ার গ্রিড আন্দোলনের মূলচক্রী আরও এক তৃনমূলী নেতা আরাবুল ও তার পরিবার। খবরে প্রকাশ সরকারী টাকার কয়েককোটি, সে বেটা মস্তানি করে হাপিস করে দিয়েছে এবং সে বিষয়ে কোলকাতা হাইকোর্টে একটি মামলাও হয়েছে। এটাও তো সরকারী সম্পত্তি নষ্ট করা হলো। এ ক্ষেত্রেও জরিমানা ধার্য করা দরকার।
সবশেষে জানতে চাওয়া একটাই জরিমানা বিলটা কার নামে লেখা হবে আর কোন ঠিকানায় পাঠানো হবে?
ও দলে নাকি মালকীন একটাই। বিধানসভার অধ্যক্ষ কি এ বিষয়ে কোনো আলোকপাত করতে পারবেন ?