বিশেষ প্রতিবেদন, টিডিএন বাংলা : মায়ানমারে গণহত্যা নিয়ে সরকার ও রাজনৈতিক দলগুলিকে সক্ৰিয় হবার আহ্বান জানালেন বিশিষ্ট সাংবাদিক ও সাংসদ কুনাল ঘোষ। তিনি আজ তার নিজের ফেসবুক পোস্টে বলেন, “মায়ানমারের দিকে কী চলছে? যেসব খবর আর ছবি আসছে, তার এক শতাংশও যদি সত্যি হয়, তাহলে ওখানে চলছে গণহত্যার উৎসব!! সোশ্যাল মিডিয়ায় এগুলি ছড়িয়ে পড়ছে। মানুষের মনে প্রতিক্রিয়া হচ্ছে।


অবিলম্বে রাজনৈতিক দলগুলি এবং সরকার সক্রিয় হোক। রাজ্য কথা বলুক কেন্দ্রের সঙ্গে। কেন্দ্রীয় বিদেশমন্ত্রক সংশ্লিষ্ট দেশের সঙ্গে কথা বলুক। এভাবে নরসংহার যজ্ঞ চলবে আর সভ্য সমাজ, অন্য দেশ বসে বসে দেখবে? অন্তত সত্যাসত্য জানার চেষ্টা হবে তো?”

কুনাল বাবু আরও লেখেন, “যেসব অপরীক্ষিত তথ্য আসছে, তা অতি বিপজ্জনক। অবিলম্বে আন্তর্জাতিক হস্তক্ষেপ দরকার। এটি দয়া করে কোনও একটি ধর্মাবলম্বীদের উপর আঘাত হিসেবে দেখবেন না। যে কোনও দেশে যে কোনও পরিস্থিতিতে নারী শিশু নির্বিশেষে এই গণহত্যা প্রতিবাদযোগ্য। কোনও তুলনা টেনে এটিকে প্রতিষ্ঠা করতে যাওয়া ঠিক হবে না।” তাই তিনি সরকারের প্রতি উদ্দেশ্য করে বলেন, সরকার বিষয়টি জানুক, জানাক এবং মানবতার খাতিরে যথাযথ দায়িত্ব পালন করুক। নৃশংস গণহত্যা কোনও সমস্যার সমাধান হতে পারে না। যদিও এটি ভারতের বিষয় নয়, তবু মহাদেশের এই অংশে এমন হিংসা হচ্ছে আর আমরা দর্শক থাকতে পারি না। সাংসদরা সরকারকে বলুন। আমিও এবিষয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণের সাধ্যমতো চেষ্টা করছি। যদি রটনা সত্য হয়, প্রতিবাদ হোক। অন্যথায় মানুষকে সত্য যেটুকু যা হচ্ছে, জানানো হোক। সোশ্যাল মিডিয়ার প্রচার যত ছড়াচ্ছে, ক্ষোভ, উদ্বেগ তত বাড়ছে। সরকার দেখুক বিষয়টা।