নিজস্ব সংবাদদাতা, টিডিএন বাংলা, মুর্শিদাবাদ: “ব্যস্ততার মাঝে ক্ষনিকের প্রশান্তি” সেরা বিনোদনে এবার মুর্শিদাবাদ মাতালেন ওপার বাংলার বিখ্যাত শিল্পী আমিরুল মোমেনিন মানিক। বর্তমান বিশ্বের এই অপসংস্কৃতির বিরুদ্ধে সুস্থ সংস্কৃতির বার্তা দিতেই মুর্শিদাবাদের রঘুনাথগঞ্জ এ এক ভিন্নধর্মী অনুষ্ঠানের আয়োজন করে তামাদ্দুন ও অনন্য শিল্পীগোষ্ঠী। সেই অনুষ্ঠানেই মূলত জীবনমুখী গান, কৌতুকে মাতিয়ে তুলেন মানিক। শনিবার রবীন্দ্রভবনের এই অনুষ্ঠানে উপচে পড়ে জনতার ভীড়। নতুন বছরের প্রথম সপ্তাহেই এধরনের বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান পেয়ে আনন্দে মাতোয়ারা মুর্শিদাবাদবাসী। এদিনের এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ওপার বাংলার বিখ্যাত অভিনেতা নাট্যকার আব্দুল গনী বিদ্বান, এপারের শিল্পী নূর আলম, ফারুক আজম, সাদিকুর রহমান, আব্দুল কাফি, শেখ খায়রুজ্জামান সহ আরো বিশিষ্ট শিল্পীরা। অনুষ্ঠানে ছিলেন মুর্শিদাবাদ জেলার মুখ উজ্জ্বলকারী পদার্থবিজ্ঞানী রাকিবুল ইসলাম, ডব্লিউবিসিএস এ রাজ্যে ১৪ তম স্থানাধিকারী সামসেরগঞ্জের কৃতি সন্তান সামিরুল ইসলাম, সেরা বিনোদনের রাজ্য কনভেনর এস নওয়াজ, জেলা কনভেনর আব্দুল্লাহিল কাফি সহ বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ।

দেশজুড়ে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের নামে যেভাবে অপসংস্কৃতির ঢেউ চলছে সেই অপসংস্কৃতি রুখে দিয়ে সুস্থ সংস্কৃতি দিয়ে যুব সমাজকে বিনোদন দিতে ও সু সংস্কৃতি উপহার দিতে “সেরা বিনোদন” নাম দিয়ে রাজ্যজুড়ে তিনটি অনুষ্ঠান করছে তামাদ্দুন ও অনন্য শিল্পীগোষ্ঠী। ইতিমধ্যেই হাওড়া ও চব্বিশ পরগনায় শেষ হয়েছে এই অনুষ্ঠান। শনিবার ছিল মুর্শিদাবাদে শেষ অনুষ্ঠান। তেলাওয়াত, স্বাগত ভাষণ দিয়ে অনুষ্ঠানের শুরুর পরেই শুরু হয় বিভিন্ন ইসলামী সংগীত পরিবেশন। এপার বাংলার শিল্পীরা রবীন্দ্র ভবন মাতিয়ে তুলেন।  শিশু শিল্পীদের দ্বারা নাটক ও নাটিকা পরিবেশিত হয়।  দেশের বর্তমান অস্হিষ্ণু অবস্থা নাটকের মাধ্যমে তুলে ধরে এসম্পর্কে সকলকে সচেতনতার বার্তা দেন নাট্যকাররা। সবশেষে পরিবেশিত হয় নাটক “নিরুদ্দেশ”।


এদিন আমিরুল মোমেনিন মানিক গান কবিতা কৌতুকে মাতিয়ে তুলেন গোটা রবীন্দ্র ভবন চত্ত্বর।মোবাইলের অপব্যবহার নিয়ে তিনি গানে গানে অভিভাবকদের সচেতনতা করেন। মাকে নিয়ে তিনি অসাধারণ গান গেয়ে সকলের মন জয় করেন।পাশাপাশি ভাটিয়ালি সুরেও সঙ্গীত পরিবেশনা করেন মানিক। এছাড়াও অভিনেতা বিদ্বান অভিনয়ের মাধ্যমে শ্রোতাদের মন জয় করেন।