টিডিএন বাংলা ডেস্ক:  আন্তর্জাতিক দুনিয়ায় আবার সম্মানিত বলিউড বাদশা। ফের লন্ডনের এক বিশ্ববিদ্যালয় সাম্মানিক ডক্টরেট দিল শাহরুখ খানকে। তবে এই প্রথম নয়, এর আগে লন্ডনের এডিনবার্গ ও বেডফোর্ডশায়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে সাম্মানিক ডক্টরেট পেয়েছেন কিং খান। এবার লন্ডন ইউনির্ভাসিটি অফ ল-এর তরফে ফিলনথ্রফিতে অর্থাৎ মানবপ্রীতিতে সাম্মানিক ডক্টরেট দেওয়া হল বলিউডের এই তারকাকে।

বৃহস্পতিবার লন্ডন ইউনির্ভাসিটি অফ ল-এর গ্র্যাজুয়েশন সেরিমনিতে ৩৫০ ছাত্র-ছাত্রীর উপস্থিতিতে শাহরুখের হাতে এই সাম্মানিক তুলে দেওয়া হয়। এজন্য লন্ডন ইউনির্ভাসিটি অফ লকে ধন্যবাদ জানিয়ে টুইট করেছেন শাহরুখ।

এ প্রসঙ্গে কিং খান বলেন, ” আমি বিশ্বাস করি দানধ্যান সব সময় নীরবে ও সম্মানের সঙ্গে করা উচিত। দানধ্যানের পরে কেউ যদি তার প্রচার করে তাহলে তার মহৎ উদ্দেশ্যটাই ব্যর্থ হয়। জনতার দরবারে আমার যে পরিচিত আছে সেই পরিচিতিকে কাজে লাগিয়ে আমি এই কাজগুলি আরও বেশি ভালোভাবে করতে পারি। সেবামূলক কাজ আমার হৃদয়ের ভীষণ কাছের।” শাহরুখের কথায়, ”নারী ক্ষমতায়ন, দুঃস্থদের পুনর্বাসন ও মানুষের অধিকার রক্ষার্থে আমি কাজ করি। আমি বিশ্বাস করি, এই পৃথিবী আমাকে অনেক কিছুই দিয়েছে। তাই তার কিছুটা অন্তত আমার ফিরিয়ে দেওয়া উচিত। আমাকে এই সম্মানের জন্য নির্বাচন করায়  আমি কৃতজ্ঞ।”

শাহরুখের নিজস্ব স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন মীর ফাউন্ডেশনের তরফে বিভিন্ন সমাজসেবামূলক কাজ করা হয়। বিশেষকরে গতবছরই দেশের অ্যাসিড আক্রান্ত মহিলাদের সাহায্যার্থে সমস্তরকম ভাবে পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছেন শাহরুখ। তাঁর অবর্তমানে এই কাজের দায়িত্ব তাঁর মেয়ে সামলাবে বলেও ঘোষণা করেছিলেন কিং খান। সম্প্রতি, অ্যাসিড আক্রান্ত মহিলাদের অস্ত্রপচারের দায়িত্ব নেওয়ার কথাও জানিয়েছেন শাহরুখ। পাশাপাশি আরও  বিভিন্ন সমাজসেবামূলক কাজের সঙ্গে জড়িত বলিউড বাদশা।