টিডিএন বাংলা ডেস্ক: আত্মঘাতী টালিগঞ্জের অভিনেত্রী পায়েল চক্রবর্তীর মৃতদেহ নিতে বৃহস্পতিবার তাঁর পরিবারের সদস্যরা শিলিগুড়িতে আসেন। বুধবার শিলিগুড়ির এয়ারভিউ মোড় সংলগ্ন একটি হোটেল থেকে কলকাতার যাদবপুরের বাসিন্দা আত্মঘাতী টলিউড অভিনেত্রী পায়েলের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। শিলিগুড়ি থানাসূত্রে খবর পেয়ে এদিন তাঁর পরিবার শিলিগুড়িতে এসে পৌঁছায়। পায়েলের বাবা প্রবীর গুহ জানিয়েছেন, ‘‘পায়েল মানসিক অবসাদে ভুগছিল। তাঁদের মেয়ে বিবাহিত এবং ৯বছরের সন্তান রয়েছে। স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদের মামলা চলছে। পায়েল আলাদা থাকতো। ছেলেকে নিজের কাছে রাখার জন্য চেষ্টা চালাচ্ছিল বেশ কিছুদিন থেকেই।’’ তিনি আরও জানান, ‘‘মেয়ে জানিয়েছিল যে রাঁচিতে শ্যুটিংয়ে যাচ্ছে।’’ এদিন শিলিগুড়িতে পৌঁছে বাবা প্রবীর গুহ মেয়ের দেহ শনাক্ত করেন। মানসিক অবসাদের কারণেই মেয়ে আত্মঘাতী হয়েছেন বলে তিনি জানান। বৃহস্পতিবার মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠানো হয়।