টিডিএন বাংলা ডেস্ক: জহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের পাশে দাঁড়ানোয় বিভিন্ন স্থানে দীপিকা পাড়ুকোনের বিরোধিতায় সরব হয়েছে বিজেপি। ছপক সিনেমা বয়কটেরও ডাক দেওয়া হয়েছে। যদিও এই প্রেক্ষাপটে কার্যত দীপিকা পাড়ুকোনের পাশে দাঁড়ালেন দুই অভিনেত্রী সোনাক্ষি সিনহা ও সাবানা আজমি। ট্যুইটে সোনাক্ষি লিখেছেন, দীপিকা যে কাজটা করেছে তাকে আমি সমর্থন করি। আমরা কোন দলকে সমর্থন করি সেটা পরের ব্যাপার কিন্তু কখনোই হিংসাকে সমর্থন করিনা। পড়ুয়াদের মাথা ফেটে রক্ত বেরিয়েছিল, শিক্ষকরা ভয়ে কাঁপছিল? এটা দেখেও কি আমাদের চুপ থাকতে হবে? কার্যত প্রশ্ন ছুড়ে দেন তিনি।

অন্যদিকে এদিন সাবানা আজমি ট্যুইটে বলেন, যখন দীপিকা পাড়ুকোন তার পদ্মাবতী সিনেমার জন্য হেনস্থা হয়েছিলেন তখন কিছু মানুষই তার পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন। হেনস্থার ফল কি হয় সেটা দীপিকা ভালো করে জেনেই জেএনইউ’য়ের পাশে দাঁড়িয়েছেন। আমি দীপিকাকে সমর্থন করি।

 উল্লেখ্য, রবিবার সন্ধ্যায় জহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসের ভিতরে ঢুকে ছাত্রছাত্রীদের উপর হামলা চালায় দুষ্কৃতীরা। অভিযোগের তীর উঠে আরএসএসের ছাত্র সংগঠন এবিভিপির বিরুদ্ধে। যদিও পরে ঘটনায় একটি হিন্দু সংগঠন দায় স্বীকার করে। ঘটনায় আক্রান্ত হন বাংলার মেয়ে তথা জেএনইউ ছাত্র সংসদের সভাপতি ঐশী ঘোষ সহ আরো বেশ কয়েকজন ছাত্রছাত্রী। মেরে মাথা ফাটিয়ে দেওয়া হয় ঐশী ঘোষের। হোস্টেলের ভিতরে ব্যাট–উইকেট নিয়ে ভাঙচুর চালানো হয় বিশ্ববিদ্যালয়ের হোস্টেলে। ঘটনায় রীতিমতো দেশজুড়ে প্রতিবাদের আওয়াজ উঠে। সরব হয় বলিউডও। মঙ্গলবার ছাত্রছাত্রীদের পাশে দাঁড়িয়ে জে এন ইউ ছুটে যান দীপিকা পাড়ুকোনও।