টিডিএন বাংলা ডেস্ক: দেশকে পথ দেখাতে চলেছে দীপিকা পাড়ুকোনের ‘ছপক’। বলা যেতে পারে যে বহু বিতর্কের মাঝে চরম সাফল্য পেল ‘ছপক’। সামাজিক দিক থেকেও প্রভাব তৈরি করল দীপিকার ছপক। ‘ছপক’ থেকে অভিভূত হয়ে এবার অ্যাসিড আক্রান্তদের জন্য পেনসন চালুর ঘোষণা করল উত্তরাখণ্ড সরকার।

উত্তরাখণ্ডের নারী ও শিশু কল্যাণ মন্ত্রী রেখা আরিয়া জানিয়েছেন অ্যাসিড আক্রান্তদের পেনসন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। তাঁদের মাসে ৫০০০-৬০০০ টাকা পেনসন দেওয়া হবে। যাতে অ্যাসিড আক্রান্ত সমাজে মাথা তুলে বাঁচতে পারে কারোর উপর নির্ভরশীল হতে না হয়, সেকারণেই এই উদ্যোগ বলে জানিয়েছেন তিনি। মন্ত্রিসভার অনুমোদনের পরেই প্রকল্পটি কার্যকর করা হবে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রী।

কদিন আগে জেএনইউ-র ছাত্রদের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন দীপিকা। আর তাতেই তার সিনেমা বইকটের ডাক দেয় দিল্লির এক বিজেপি নেতা। কিন্তু সেই বিরোধিতার থোরায় কেয়ার জনগণের। বিতর্কের পরেও কোটি কোটি টাকা আয় করে চলেছে ‘ছপক’। তাছাড়া বয়কটের ডাক যে কোনও কাজে আসেনি তা প্রমাণ করে দিল উত্তরাখণ্ড সরকারের এই পদক্ষেপে।

উল্লেখ্য, অ্যাসিড আক্রান্ত লক্ষ্মী আগরওয়ালের লড়াই বড় পর্দায় ফুটিয়ে তুলেছেন অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোন। অ্যাসিডে মুখ ক্ষতবিক্ষত হয়ে যাওয়ার পর লক্ষ্মীকে সমাজে যে কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে পড়তে হয়েছে সেটাই ফুটে উঠেছে এই ছবিতে। তাতেই কেল্লা ফতে। একটি ছবিতেই লক্ষ্মীর জীবনের লড়াই মানুষকে কঠিন সত্যের মুখে দাঁড় করিয়ে দিয়েছে। নতুন করে বাঁচার স্বপ্ন দেখছেন অ্যাসিড আক্রান্তরা।