নিজস্ব সংবাদদাতা, টিডিএন বাংলা, পুরুলিয়া: সম্প্রতি পুরুলিয়ার বাঘমুন্ডির ‘আরণ্যক’ প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হল সর্বভারতীয় পাক্ষিক পত্রিকা “দুনিয়া ইন দিনো”-এর উদ্যোগে ‘লালন পুরস্কার’প্রাপ্ত নাচনী শ্রদ্ধেয়া পোস্তবালাকে “ভেরিয়ার এলউইন পুরস্কার ২০১৮” প্রদান ও সম্মাননা জ্ঞাপন।অনুষ্ঠানে অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন পত্রিকাটির প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক, বিশিষ্ট কবি সুধীর সাক্সেনা,অনুবাদশিল্পী অমৃতা বেরা,হিন্দী ভাষী কবি শ্যাম অবিনাশ, কবি নির্মল হালদার,সাংবাদিক ও চিত্রকলা গবেষক দেবাশিস চন্দ এবং ঔপন্যাসিক বিমল লামা।

নৃতত্ত্ববিদ ও গান্ধীপন্থী সমাজ সংস্কারক ব্রিটিশ ভেরিয়র এলউইনের নামে ২০১৬ সাল থেকে শুরু হওয়া পুরস্কারটির এই বছরের প্রাপক পোস্তবালা দেবীর হাতে পুরস্কারের সাম্মানিক অর্থমূল্য  ও মেমেন্টো তুলে দেওয়া হয়।

এরপর কবিতাপাঠ।হিন্দীতে পাঠে ছিলেন সুধীর সাক্সেনা,শ্যাম অবিনাশ, যুগ্ম ভাষায় অমৃতা বেরা,বাংলায় সোমা চৌধুরী লামা,সোনালী চক্রবর্তী এবং ভূমিপুত্র অভিমন্যু মাহাত।

অন্তিম পর্বে ছিলো পোস্তবালা দেবীর নৃত্যানুষ্ঠান। তাঁর জন্ম ১৯৭০ সালে কর্মাটাঁড়ে।বাবা মায়ের হাত ধরে ছোটবেলা থেকে তাঁর গান ও নাচের তালিম।’রসিক’ ও ঝুমুর কবি বিজয় কর্মকারের সঙ্গে এখন সংসার বলরামপুর থানার ডুমারীতে।তিনি নাচনী সম্প্রদায়ের আন্দোলনের সঙ্গেও যুক্ত।”মানভূমি লোকসংস্কৃতি” ও “নাচনী উন্নয়ন সমিতি”-এর তিনি সম্পাদক।প্রখ্যাত এই শিল্পী এখনও দিনমজুর।রাজ্য সরকারের শিল্পী ভাতা মাসিক ১০০০টাকা মাত্র পান।একদা পোস্তবালা জনপ্রিয়তার শীর্ষে ছিলেন।পুরস্কারের সন্ধ্যাতেও প্রাঙ্গন ছিলো লোকে লোকারণ্য।

Advertisement
mamunschool