নতুন অমলকান্তির গল্প

শ্যামাপ্রসাদ ঘোষ, টিডিএন সাহিত্য:

কাঁসাই নদীর সাঁকো পেরিয়ে যাচ্ছে অমলকান্তি
ও বড়োবউ তুমি রোদ্দুরকে ডেকো না।
পুকুর এঁদো হয়ে যাচ্ছে,
মরাই শব্দটিকে অভিধান আর রাখতে চাইছে না,
আমন ধান এখন বন্ধু খুঁজতে গেছে,
এখন চাসির উঠোনে  আলো করে
উদ্বাস্তু  শিবিরের ডোল নয়
বাঁশ নির্মিত ধান – মজুতের ডোল।
সবজি বাগান এখন উঠোন পেরিয়ে
সিঁড়ি দিয়ে উঠে যাচ্ছে  ছাদে,
আর জংলা ডুরে শাড়ি ক্রমশ জঙ্গল ছাড়িয়ে
পশ্চিমমুখী পথ ধরে হাঁটছে,
চড়াইরা ধান খুঁটতে যায় মিল মালিকের চাতালে,
লোকেরা এখন ছেলের সাইকেল নিয়ে চলে ।

রোদ্দুর মাড়িয়ে পথ হাঁটে অনেকগুলো  অমলকান্তি ।
কিন্তু  ওরা কেউই  রোদ্দুর হতে চায় না,।
জাম আর জামরুলের  পাতার ফাঁক দিয়ে এলেও না।
সব অমলকান্তি এখন চাকরি চায়।
নীরেনবাবু, এবার তুমি রোদ্দুর নয়
সুবোধবাবুর মতো তুমি  অমলকান্তিদের
চাকরি চাওয়ার গল্প লেখো,
যে অমলকান্তিরা রুপমের মতো
জলের গভীরতার কথা নয়
চাকরির কথা ভাবতে ভাবতে
ভাবতে ভাবতে একদিন ঠিক পৌঁছে যাবে
চাকরি নামক রোদ্দুরের দেশে।