টিডিএন বাংলা ডেস্ক: করোনার মারণ থাবায় জুবুথুবু গোটা বিশ্ব। করোনা মোকাবিলায় বিশ্বজুড়ে চলছে লকডাউন। আর এই লকডাউনের ফলে একেবারে ভেঙে পড়েছে বিশ্ব অর্থনীতি। করোনার পরে গোটা বিশ্ব হবে ক্ষুধা ও দুর্ভিক্ষময়, এমনটাই জানাল জাতিসংঘ।

জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস বলেন, ক্ষুধা ও দুর্ভিক্ষ আসন্ন। ছয় কোটি মানুষ দারিদ্র্যের নিম্নসীমায় চলে যাবে। বিশ্বের অর্ধেক মানুষ কাজ হারিয়ে ফেলতে পারে। এক দশমিক ছয় বিলিয়ন মানুষ জীবিকা হারিয়ে ফেলতে যাচ্ছে। সারাবিশ্বে আট দশমিক পাঁচ ট্রিলিয়ন ডলারের ক্ষতি হচ্ছে। ১৯৩০ সালের পর সবচেয়ে খারাপ অবস্থার মধ্যে পড়তে যাচ্ছে বিশ্ব। সে কারণে করোনা পরবর্তী বিশ্ব ক্ষুধাময় হওয়ার আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন তিনি। বৃহস্পতিবার নিউইয়র্কে ব্যবসায়ী নেতাদের সঙ্গে আলাপকালে করোনার জেরে বিশ্বের ভঙ্গুর অবস্থার কথা বলতে গিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

অ্যান্তোনিও গুতেরেস সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিগত দিক দিয়ে অগ্রগতির পরেও বর্তমানে সারাবিশ্ব করোনাভাইরাসের কারণে অত্যন্ত সঙ্কটের মধ্যে আছে।

তিনি আরও বলেছেন, এখনই যথাযথ পদক্ষেপ নেওয়া না গেলে করোনাভাইরাস মহামারিটি বিশ্বজুড়ে অকল্পনীয় ধ্বংসযজ্ঞ এবং যন্ত্রণার কারণ হয়ে দাঁড়াবে।

এদিকে সারাবিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে ৫৯ লাখ পাঁচ হাজার দু’শ ৯২ জন এবং মারা গেছে তিন লাখ ৬২ হাজার ২৩ জন।