টিডিএন বাংলা ডেস্ক: একটি উর্দু দৈনিকে সাংবাদিকতা করতেন স্ত্রী। কিন্তু সেই পেশা থেকে সড়ে আসায় স্বামীর হাতে খুন হলেন বছর ২৭ এর উরোজ ইকবাল নামে এক মহিলা সাংবাদিক। গত সোমবার ঘটেছে ঘটনাটি ঘটেছে পাকিস্তানের লাহোরে।

পুলিশ জানায়, ঘটনায় দিন লাহোরে উরোজ ইকবাল যখন তার অফিসে প্রবেশ করছিলেন এসময় তার স্বামী দিলওয়ার আলি তার মাথায় গুলি করে। ইতিমধ্যে দিলওয়ার আলির বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। দিলওয়ার আলিও একটি দৈনিকে কাজ করেন বলে জানা গেছে।

উরোজ ইকবালের ভাই ইয়াসির ইকবাল বলেন, তার বোনের সঙ্গে দিলওয়ার আলির প্রেমের সম্পর্ক ছিল। ৭ মাস আগে তারা বিয়ে করে। কিন্তু বিয়ের পর পারিবারিক ইস্যু ও তার বোনের সাংবাদিকতা নিয়ে তাদের সম্পর্ক অনেক খারাপ হতে থাকে।

এছাড়া তিনি জানান, তার বোন সাংবাদিকতা ছেড়ে না দেয়ায় তাকে তার স্বামী নির্যাতন করতো। এনিয়ে থানায় আলির বিরুদ্ধে অভিযোগও করা হয়। কিন্তু পুলিশ কোন ব্যবস্থা নেয় নি।

জানা যায়, উরোজ ইকবাল তার স্বামীর সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি ঘটলে তার অফিস সংলগ্ন একটি কক্ষে বাস করতেন। তিনি ক্রাইম রিপোর্টার ছিলেন। ইতিমধ্যে পুলিশ ওই ঘটনার সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করেছে এবং ফরেনসিক এনালাইসিসের জন্যে পাঠিয়েছে।