টিডিএন বাংলা ডেস্ক :নিউজিল্যান্ডের দুটি মসজিদে সন্ত্রাসী হামলায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪৯ দাঁড়াল, যার মধ্যে ২ বাংলাদেশীও রয়েছে বলে জানান দেশটির প্রধানমন্ত্রী আরডেন। হামলায় ১০ জন নিহত হয়েছেন লিনউড মসজিদে ও ৩০ জন নিহত হয়েছেন ডিনস অ্যাভিনিউয়ের মসজিদে। প্রধানমন্ত্রী আরডেন আরও জানিয়েছেন, একেবারে পরিকল্পনা করেই ওই হামলা চালানো হয়েছে। দুটি গাড়ি থেকে বিস্ফোরক উদ্ধার করা হয়েছে। প্রসঙ্গত ওই হামলায় ৪৮ জন আহত। এদের মধ্যে ২০ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। এদিকে, ক্রাইস্টচার্চের পুলিস কমিশনার জানিয়েছে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪৯। আহতদের মধ্যেও ৫ বাংলাদেশী রয়েছে যাদের দুই জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তবে অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট টিম।

জানা যায়, ক্রাইস্টচার্চ শহরের হ্যাগলি পার্ক মুখী সড়ক দীন এভিনিউতে আল নুর মসজিদে স্থানীয় সময় আজ শুক্রবার বেলা দেড় টা নাগাদ এই হামলার ঘটনা ঘটে। এছাড়া অন্য আরো একটি মসজিদের হামলা চালায় বলে জানানো হয়েছে।

নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্ন বলেছেন, এটি নিউজিল্যান্ডের ইতিহাসের কলঙ্কময় দিনগুলোর একটি।

দেশটির পুলিশ কমিশনার মাইক পুশ বলেছেন, এই ঘটনায় চারজন সন্দেহভাজনকে আটক করা হয়েছে। এরমধ্যে একজন নারী রয়েছে।

তবে আরো একজন বন্দুকধারী ‘সক্রিয়’ থাকতে পারে বলে সতর্ক করেছে পুলিশ।

আটক হামলাকারীদের একজন অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক বলে নিশ্চিত করেছে অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন।

এছাড়া পরবর্তী নোটিশ না দেয়া পর্যন্ত সেখানকার স্থানীয় বাসিন্দাদের বাড়ি থেকে বের হতে এবং রাস্তায় নামতে নিষেধ করা হয়েছে। সেইসঙ্গে পরবর্তী ঘোষণা না আসা পর্যন্ত স্কুলও বন্ধ থাকবে বলে জানানো হয়েছে।