টিডিএন বাংলা ডেস্ক : ভারত- পাকিস্তান উত্তেজনা কমাতে দ্রুত পদক্ষেপ নিন, প্রয়োজনে সাহায্য করা হবে বলে জানাল রাষ্ট্রপুঞ্জ। যদি দুই দেশ চায় তবে রাষ্ট্রপুঞ্জ মধ্যস্থতা করবে। ভারত ও পাকিস্তানকে মঙ্গলবার এমন বার্তাই দিলেন রাষ্ট্রপুঞ্জের মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস। পুলওয়ামা হামলা পর ভারত ও পাকিস্তানে যে উত্তেজনার আবহ তৈরি হয়েছে, হুমকি-পাল্টা হুমকির পালা চলছে তাতে দু’দেশেই একটা উদ্বেগজনক পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। গুতেরেসের তাই আহ্বান, এই উত্তেজনা কমাতে দু’দেশই যেন দ্রুত পদক্ষেপ করে। ওই দিন সাংবাদিক বৈঠক করে রাষ্ট্রপুঞ্জ প্রধানের মুখপাত্র স্টেফানি ডুয়ারিচ বলেন, সেক্রেটারি জেনারেল ভারত-পাকিস্তান দু’দেশকেই সংযত থাকার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন। যদি এ বিষয়ে কোনও সহযোগিতা চায় তারা, তা দিতেও প্রস্তুত রাষ্ট্রপুঞ্জ।ডুয়ারিচ আরও বলেন, পুলওয়ামা হামলার পর ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে উত্তেজনার যে আবহ তৈরি হয়েছে, তা অত্যন্ত উদ্বেগজনক।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামায় পাক মদতে পুষ্ট জইশ জঙ্গিগোষ্ঠীর হামলায় ৪০ জন জওয়ান নিহত হন। তার পরই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন যারা এই হামলায় জড়িত তাদের শাস্তি দেওয়া হবেই। সিআরপিএফ-ও বিবৃতি জারি করে বলে, এর বদলা নেওয়া হবেই। এরপর পাকিস্তান প্রধান ইমরান খানও বলেন, তদন্ত না করেই পাকিস্তানকে দোষী সাব্যস্ত করা হচ্ছে। ভারত যদি প্রমান করতে পারে পাকিস্তান এই ব্যাপারে জড়িত, তবে তাদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নেওয়া হবে। তবে ভারত যদি আক্রমন করে তারাও চুপ বসে থাকবে না। পাল্টা আক্রমণ করবে।