টিডিএন বাংলা ডেস্ক : ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের নতুন প্রধান ইসমাইল হানিয়াকে অভিনন্দন জানিয়েছেন ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ। ইসমাইল হানিয়াকে পাঠানো এক চিঠিতে এই অভিনন্দন জানান জারিফ। একইসঙ্গে তিনি ফিলিস্তিনের জনগণের প্রতি ইরানের সমর্থনের কথা উল্লেখ করেছেন।

গত শনিবার হামাসের সাবেক শীর্ষ নেতা খালেদ মাশআলের জায়গায় নিযুক্ত হন ইসমাইল হানিয়া। ২০০৬ সালে ফিলিস্তিনের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি দেশটির প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন। ওই নির্বাচনে বিপুল ভোটে বিজয়ী হয় হামাস। পরে হামাস ও ফাতাহ আন্দোলনের মধ্যকার দ্বন্দ্বের জের ধরে প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস হামাসের নেতৃত্বাধীন সরকার ভেঙে দেন। সেই থেকে হামাস গাজা উপত্যকায় শাসন পরিচালনা করে আসছে।

গত ১ মে হামাস তার নীতি থেকে কিছুটা সরে গিয়ে ১৯৬৭ সালের সীমানা মেনে স্বাধীন ফিলিস্তিনি রাষ্ট্র গঠনের পরিকল্পনা মেনে নিয়েছে। তবে তাদের সশস্ত্র আন্দোলন অব্যাহত রাখার কথাও ঘোষণা করেছে। এরপর গত শনিবার ইসমাইল হানিয়াকে হামাসের প্রধান হিসেবে নির্বাচিত করা হয়