টিডিএন বাংলা ডেস্ক : বারুদের স্তূপে আগুন দেয়াই যেন বাকি৷ মার্কিন নৌবাহিনীর যেকোনো রকম হামলার জবাবে কিম জংয়ের একটি ঠাণ্ডা গলার নির্দেশ৷ তারপরেই দুনিয়াজুড়ে ঘটতে পারে পর পর পরমাণু বিস্ফোরণ৷

উত্তর কোরিয়া তার পরমাণু অস্ত্রের ভাণ্ডার প্রস্তুত রেখেছে৷ প্রয়োজনে সেই সংখ্যা আরো বাড়িয়ে নিতে পারে তারা৷ আগামী তিন বছরের মধ্যে অন্তত ৬০টি পরমাণু বোমা তৈরির ক্ষমতা রাখেন কিম জং উন৷ এমনই চাঞ্চল্যকর গবেষণা রিপোর্ট দিয়েছে সায়েন্স অ্যান্ড ইন্টারন্যাশনাল সিকিউরিটি৷ এই মার্কিন প্রতিষ্ঠানের রিপোর্ট পেয়েই নড়েচড়ে বসেছেন পেন্টাগনের সেনা কর্তারা।

গবেষণা রিপোর্টে বলা হয়েছে, ১৯৯৯ সালের হিসেব অনুসারে মার্কিন প্রতিরক্ষা গবেষকরা ধারণা করতেন, পিয়ংইয়ংয়ের হাতে মাত্র দুটি পরমাণু বোমা রয়েছে। সাকুল্যে সেটা বেড়ে ২০২০ সালের মধ্যে ১০টি হতে পারে৷ সেই হিসেব উল্টে যাচ্ছে৷ বিভিন্ন সূত্র বিশ্লেষণ করে গবেষকরা দেখছেন পরমাণু কর্মসূচিতে ব্যাপক অগ্রগতি ঘটিয়েছে উত্তর কোরিয়া৷ দেশটির প্রাকৃতিক সম্পদ পরমাণু বোমা তৈরির কাঁচামাল হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে৷ যেহেতু পিয়ংইয়ং আন্তর্জাতিক পরমাণু কর্মসূচি মেনে চলে না তাই তারা পারমাণবিক শক্তি বাড়িয়েই গেছে৷