টিডিএন বাংলা ডেস্ক :  কাশ্মীর হামলায় পাকিস্তান কোনওভাবে জড়িত বা পাক মাটি ব্যবহার করে এই হামলার ষড়যন্ত্র হয়েছে, তার প্রমাণ দিক ভারত। আমি গ্যারান্টি দিচ্ছি, উপযুক্ত প্রমাণ দিতে পারলে ব্যবস্থা নেবই। এদিন পুলওয়ামা হামলা নিয়ে এমনটাই বললেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। একই সঙ্গে পাক প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, পাকিস্তানের উপরে হামলা হলে তার জবাবও পাবে ভারত।

নিজের এই মন্তব্যের পক্ষে আরো যুক্তি দিয়ে ইমরান বলেন, গোটা বিশ্বে সন্ত্রাসবাদের জেরে সব থেকে ক্ষতিগ্রস্ত দেশের নাম পাকিস্তান। আমাদের দেশের সত্তর হাজার মানুষ সন্ত্রাসের বলি হয়েছেন। এখন পাকিস্তান স্থায়িত্বের দিকে এগোচ্ছে।

এই সময় কেন এমন হামলা করবে পাকিস্তান, সেটাই জানতে চেয়েছেন ইমরান খান। তাঁর দাবি, কাশ্মীরে কিছু হলেই পাকিস্তানের দিকে আঙুল তোলে ভারত। তাঁর বক্তব্য, ভারত প্রমাণ দিলে তিনি সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবেন। পাশাপাশি তিনি ভারতকে আলোচনার টেবিলে আহ্বান জানিয়েছেন। সন্ত্রাসবাদ নিয়েও আলোচনা করতে প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন তিনি।

এর পরেই কাশ্মীর নিয়ে ভারতকে আক্রমণ করতে শুরু করেন ইমরান। তিনি বলেন, ভারতের এবার নতুন চিন্তাভাবনা করার সময় এসেছে। কাশ্মীরী যুবকদের মধ্যে থেকে কেন মৃত্যুভয় চলে যাচ্ছে, তা ভেবে দেখুক ভারত। শুধুমাত্র সেনাবাহিনী দিয়ে অত্যাচার চালালে যে সমস্যার সমাধান হবে না, সেটা ভারতের বোঝার সময় এসেছে।

পুলওয়ামা হামলার পরেই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বদলা নেওয়ার দাবি উঠেছে গোটা ভারতে। সেই প্রসঙ্গে ইমরান খান বলেন, এটা ভারতে নির্বাচনের বছর। পাকিস্তানের উপরে হামলা চালালে তার সুফল ভোটে পাওয়া যাবে। কিন্তু একটা কথা বলে রাখি, ভারত যদি পাকিস্তানের উপরে হামলা চালায়, তা হলে পাকিস্তান তার জবাব দেওয়ার কথা ভাববে না, সরাসরি জবাব দেবে। এখানেই থেমে না থেকে তিনি আরো বলেন, তখন পরিস্থিতি সবার হাতের বাইরে চলে যেতে পারে। যুদ্ধ শুরু করা আমাদের হাতে, কিন্তু শেষ করাটা আমাদের হাতে থাকে না।