Flag of pakistan waving with highly detailed textile texture pattern

টিডিএন বাংলা ডেস্ক: এক সমীক্ষার খতিয়ানে ক্রমশ উদ্বেগ বাড়ছে। সমীক্ষা থেকে জানা গিয়েছে, আগামী ২০২৫  সালের মধ্যে পাকিস্তান বিশ্বের পঞ্চম বৃহৎ পরমাণু শক্তিধর দেশ হিসেবে আত্মপ্রকাশ করবে। বর্তমানে পাকিস্তানের কাছে ১৪০ থেকে ১৫০ টি পারমানবিক অস্ত্র রয়েছে বলে এক সমীক্ষাতে জানা গিয়েছে। আর সেই সমীক্ষাতে ধারণা করা হচ্ছে, পাকিস্তানের এই পরমাণু অস্ত্রভাণ্ডার আগামী ২০২৫ সালে ২২০-২৫০ টির কাছাকাছি চলে যাবে। মার্কিন যুক্তরাষ্টের নিউক্লিয়ার ইনফরমেশন প্রজেক্ট রিপোর্ট এমনই চাঞ্চল্যকর তথ্য দিচ্ছে। ওই রিপোর্ট অনুযায়ী, ১৯৯৯ সাল থেকে একটি খতিয়ান পেশ করে জানিয়ে ছিল ২০২০ সালের মধ্যে ৬০-৮০ পারমাণবিক অস্ত্র থাকবে পাকিস্তানের কাছে। সেই লক্ষ মাত্রার অনেক বেশি পরিমানে অস্ত্র হাতে এসেছে পাকিস্তানের হাতে।

গবেষক হ্যানস এম ক্রিসটেনসেন, রবার্ট এস নরিস ও জুলিয়া ডায়মন্ড পাকিস্তানি নিউক্লিয়ার ফোর্স নামে এই রিপোর্ট তৈরি করেছেন। ফেডারেশন অব আমেরিকান সায়েন্টিস্টের পক্ষ থেকে এই রিপোর্ট প্রকাশ করা হয় গত বছর। রিপোর্টে জানা গেছে, দ্রুত হারে নিজেদের পারমাণবিক অস্ত্র বাড়িয়ে চলেছে পাকিস্তান।

এমনকী তারা সংরক্ষণও করছে এই পারমানবিক অস্ত্রের। এভাবে যদি চলতে থাকে তবে খুব তাড়াতাড়ি পাকিস্তানের হাতে থাকা পারমাণবিক অস্ত্রের সংখ্যা ২৫০ ছাড়িয়ে যাবে। স্বাভাবিকভাবেই রিপোর্ট ঘিরে যথেষ্ট চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা বলেছেন পাকিস্তান পারমাণবিক অস্ত্রের উৎপাদন ও বৃদ্ধি ঘটাতে বেশকিছু পদক্ষেপ নিচ্ছে। আগামী ১০ বছরে এই পরিমাণ আরও বাড়বে বলে উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়েছে রিপোর্টে। (সৌজন্য: যুগশঙ্খ)