টিডিএন বাংলা ডেস্ক: জুতো পায়ে দিয়েই বৌদ্ধস্তূপের মাথায় উঠে ফটোশুট করার জেরে ভুটানে গ্রেফতার হলেন এক ভারতীয় পর্যটক। জানা গেছে ভারতীয় ওই পর্যটকের নাম অভিজিৎ রতন হাজারে। তাঁর বারি মুম্বাইয়ের মহারাষ্ট্রে। সে ছবি তোলার পর সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করে। এর পরেই বৌদ্ধস্তূপের মর্যাদা ক্ষুন্ন করা হয়েছে বলে ক্ষোভে ফেটে পড়েন বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা।

সূত্রের খবর, পুলিশ অভিজিৎ রতন হাজারেকে একটি হোটেলে আটকে রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করে। লিখিতভাবে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছে ওই যুবক। সে জানিয়েছে, “শুধুমাত্র প্রকৃতির টানে বাইকে চড়ে ভুটানে বেড়াতে গিয়েছিলাম। দোচুলা পার্কে কিছুক্ষণ বিশ্রাম নেওয়া হয়। তখন আশেপাশের দৃশ্য দেখে আমি মুগ্ধ হয়ে যাই। কিছু বুঝে ওঠার আগে আমি বৌদ্ধস্তূপের ছাদে উঠে পরি। যদি বুঝতাম ওটা বৌদ্ধস্তূপ, তাহলে জুতো পায়ে কোনওভাবেই উঠতাম না। ফটোশুটও করতাম না। তাহলে তার আশেপাশে দাঁড়িয়েই ছবি তুলতাম। ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করার কোনও উদ্দেশ্য ছিল না আমার। আমি ক্ষমা চাইছি।” লিখিত মুচলেকা জমা দেওয়ার পরই পুলিশ অভিজিৎকে ছেড়ে দেয়। তবে ভারতীয় পর্যটকের এহেন আচরণকে মোটেও ভাল চোখে দেখছেন না ভুটানের বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা। অভিজিৎ যে কাজ করেছে, তার কোনও ক্ষমা হয় না বলেই দাবি তাঁদের।