from indian express

টিডিএন বাংলা ডেস্ক: কাতারের রাজধানী দোহায় মার্কিন প্রতিনিধিদের সঙ্গে শান্তি-আলোচনায় বসার কথা জানিয়েছে আফগান তালেবান। সোমবার আফগানিস্তানের মাইদান ওয়ারদাক প্রদেশে একটি সামরিক ঘাঁটির গোয়েন্দা প্রশিক্ষণ প্রাঙ্গণে হামলায় শতাধিক সৈন্য নিহত হওয়ার পরই এই ঘোষণাটি এলো।

আফগান সরকারকে সম্পৃক্ত করার অভিযোগে সম্প্রতি ওয়াশিংটনের ডাকে পর পর দুটি আলোচনা বৈঠক বাতিল করে তালেবান। ‘সোমবার নতুন করে অনুষ্ঠিত বৈঠকে যুক্তরাষ্ট্রের সম্মতিতেই আফগানিস্তানে দখলদারিত্ব না চালানো ও ভবিষ্যতে কাবুলকে অন্যকোন দেশের বিরুদ্ধে ব্যবহার না করার বিষয়ে আলোচনা করা হয়েছে।’

সোমবার তালেবান এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানালেও ওয়াশিংটনের পক্ষ থেকে তাৎক্ষণিক কোন মন্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে এটি প্রায় ১৭ বছরের গৃহযুদ্ধাবসানে কার্যকর ভূমিকা রাখবে বলে মনে করা হচ্ছে।

তালেবান ২০০১ সালে ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পর আবারো আফগানিস্তানের অর্ধেক পুনর্দখল করেছে। বাকি এলাকাগুলোও নিজেদের কব্জায় নিতে হামলা অব্যাহত আছে। নিয়মিত হামলার অংশ হিসেবেই সোমবার দেশটির ন্যাশনাল ডিরেক্টরেট অব সিকিউরিটি (এনডিএস) কম্পাউন্ডে আক্রমণ করে। গত সোমবার সকালে এনডিএস এ একটি মার্কিন সামরিক যানবাহন প্রবেশ করার পরই তাতে আগুন ধরে যায় এবং বন্দুকধারীরা গুলি চালাতে শুরু করে। এতে অন্তত ৮ জন স্পেশাল কমান্ডোসহ ১২৬ জনের মৃত্যুর আশঙ্কা করা হচ্ছে বলে আফগান সামরিক দফতর থেকে জানানো হয়েছে। অন্যদিকে, কম্পাউন্ডটিতে সিরিজ হামলায় মোট হতাহতের সংখ্যা ১৪০ বলে স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে।