টিডিএন বাংলা ডেস্ক: পাকিস্তান লকডাউনের সময়ে শ্রমিকদের জন্য বিশেষ ত্রাণ প্রকল্পে ৭০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করল। এছাড়াও করােনা সংক্রমণ রােধে যাঁরা সামনের সারিতে লড়াই করছেন সেই স্বাস্থ্য কর্মীদের জন্য বিশেষ সহায়তা প্রকল্প ঘােষণা করেছে পাকিস্তান। এদিন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়েছে। বৈঠক শেষে সরকারের স্বাস্থ্য পরামর্শদাতা ডাঃ জাফর মির্জা বলেন , লকডাউনের ফলে শ্রমিকরা সবচেয়ে বিপন্ন অবস্থায়। তাদের ত্রাণে বিশেষ প্রকল্প নেওয়া হচ্ছে। এছাড়া স্বাস্থ্য কর্মীদের জন্য বিশেষ সহায়তা প্রকল্প নেওয়া হচ্ছে। যে কোনও স্বাস্থ্যকর্মীর সংক্রমণ মােকাবিলার সময়ে সংক্রমিত হয়ে মৃত্যু হলে সরকারি কর্মীর কর্মরত অবস্থায় মৃত্যু হলে যে ক্ষতিপূরণ পেয়ে থাকেন সেই হারে স্বাস্থ্যকর্মীরা ক্ষতিপূরণ পাবেন। তাদের জন্য  সহায়তা প্রকল্পে এই ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, এই সময়ে স্বাস্থ্য কর্মীদের সুরক্ষার সরঞ্জাম ব্যবহার করার জন্য বিশেষ জাতীয় নীতি গ্রহণ করা হচ্ছে। লকডাউনের সময় দেশে খাদ্যপণ্যের যাতে কোনও অভাব না হয় সেদিকে লক্ষ্য রেখেই সমস্ত খাদ্যপণ্য রপ্তানি নিষিদ্ধ করা হয়েছে। প্রসঙ্গত পাকিস্তানে আজ পর্যন্ত করােনায় মােট আক্রান্তের সংখ্যা ১৪ হাজার। করােনায় মৃত্যু হয়েছে ৩০০ জনের। মােট করােনা পরীক্ষা হয়েছে ১ লক্ষ ৫৭ হাজার ২২৩ জনের। গত ২৪ ঘণ্টায় পরীক্ষা হয়েছে ৬ হাজার ৪১৭ জনের। ডাঃ জাফর জানিয়েছে, সংক্রমণ রােধে যে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে তাতে আশা করা হচ্ছে এতে মৃত্যুর হার কমের দিকে আসবে।