টিডিএন বাংলা ডেস্ক: আমাদের ইউরোপীয় ইসলাম গঠনের বিষয়ে মনোযোগী হতে হবে’ শিরোনামে একটি প্রবন্ধ লিখেছেন জার্মানির স্বাস্থ্যমন্ত্রী ইয়েন্স স্পান এবং শ্লেসভিগ-হোলস্টাইন রাজ্যের প্রধানমন্ত্রী ডানিয়েল গ্যুন্টার। ইয়েন্স স্পান নিজ দলে রক্ষণশীল হিসেবে পরিচিত আর ডানিয়েল গ্যুন্টারের উদারপন্থি রাজনীতিবিদ হিসেবে পরিচিতি আছে। তারা দুজনেই ক্ষমতাসীন দল সিডিইউর সদস্য। দেশটির স্থানীয় সংবাদমাধ্যম রাইনিশে পোস্টে বৃহস্পতিবার ওই প্রবন্ধ প্রকাশিত হয়। প্রবন্ধে ইউরোপের জীবনব্যবস্থা, সংস্কৃতি, জীবনমান, ইউরোপের সমাজে অন্য সংস্কৃতিকে অন্তর্ভুক্তিকরণসহ নানা বিষয় উল্লেখ করেছেন তারা। প্রবন্ধে দেশটির এই দুই বিশিষ্ট নেতা বলছেন, ইসলামকে ইউরোপের সংস্কৃতির অংশ হিসেবে গড়ে তুলতে এ জন্য ‘ইউরোপিয়ান ইসলাম’ গঠন করতে হবে। ইউরোপে একটি অন্তর্ভুক্তিমূলক সমাজব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করা প্রয়োজন। এ জন্য ‘প্রগতিশীল ইসলাম’ গঠনের বিষয়ে তারা জোর দিয়েছেন। বলেছেন, ইউরোপের সমাজ-সংস্কৃতিতে অন্তর্ভুক্তির জন্য একটি ‘প্রগতিশীল’ ধারার ইসলাম প্রতিষ্ঠা প্রয়োজন। ‘প্রতিক্রিয়াশীল, নারীবিদ্বেষী ইসলামকে মেনে নেয়ার পরিবর্তে আমাদের ইউরোপের ঢংয়ের ইসলামের বিকাশকে ত্বরান্বিত করা উচিত বলে মন্তব্য করেন  এই দুই প্রভাবশালী রাজনীতিবিদ। ইউরোপিয়ান ধারার ইসলামের ব্যাখ্যা দিয়ে প্রবন্ধে তারা বলেন, ‘এটি ইউরোপের মূল্যবোধ ও স্বাধীনতার বিষয়টিকে ধারণ করবে। এ ছাড়া মেয়েদের বোরকা পরে স্কুল-কলেজ কিংবা বিশ্ববিদ্যালয়ে আসার বিষয়টিকে আমাদের থামানো উচিত।’ রাইনিশে পোস্ট।