টিডিএন বাংলা ডেস্ক: ধারাবাহিক বিস্ফোরণে রবিবার সকালে কেঁপে উঠল শ্রীলংকার একাধিক জায়গা। তিনটি গির্জা এবং তিনটি হোটেল কে টার্গেট করেছে বিস্ফোরণকারীরা। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ৪৯ জন মানুষের মৃত্যু হয়েছে, আহত হয়েছে ৫০০ জনেরও বেশি মানুষ। যুদ্ধকালীন তৎপরতায় আহতদের নিয়ে যাওয়া হয়েছে হাসপাতালে। কে বা কারা এই বিস্ফোরণের সঙ্গে যুক্ত সে বিষয়ে এখনো কোনো সংগঠন দায় স্বীকার করেনি। কি কারণে বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে সে বিষয়টি এখনো অন্ধকারে।

এই বিস্ফোরণের পর দেশের বিদেশ মন্ত্রী সুষমা স্বরাজ জানিয়েছেন, শ্রীলঙ্কায় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনারের সঙ্গে সব রকম যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হচ্ছে। যে কোন রকম অপ্রীতিকর পরিস্থিতির মোকাবিলায় এবং ভারতীয়দের সুরক্ষা দেবার জন্যেই যোগাযোগ করেছেন সুষমা স্বরাজ।

শ্রীলংকার বিস্ফোরণে বাড়লো আহতের সংখ্যা। ২৫ জন মানুষের মৃত্যু হয়েছে বিস্ফোরণে। আহত হয়েছেন ২০০ জনেরও বেশি মানুষ। দেশের বিদেশ মন্ত্রী সুষমা স্বরাজ এর নির্দেশের পর শ্রীলঙ্কার ভারতীয়দের জন্য হেল্পলাইন নাম্বার চালু করল ভারতীয় দূতাবাস। কেউ কোনো সমস্যার মধ্যে থাকলে হেল্প লাইন নম্বরে যোগাযোগ করার অনুরোধ।

শ্রীলঙ্কায় ধারাবাহিক বিস্ফোরণে বাড়লো মৃতের সংখ্যা ৪২ জন মানুষের মৃত্যু হয়েছে সেখানে। শ্রীলঙ্কায় বিস্ফোরণে মৃতের সংখ্যা আরও বাড়লো। ৪৯ হলো মৃতের সংখ্যা। শ্রীলংকা ধারাবাহিক বিস্ফোরণের তীব্র নিন্দা করলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, যেকোনো ধরনের হিংসা নিন্দনীয়, তা গ্রহণযোগ্য নয়। আমরা মর্মাহত পরিবারের পাশে আছি। আহতদের সংখ্যা বাড়লো ৫০০ জন মানুষ আহত ধারাবাহিক বিস্ফোরণে।