টিডিএন বাংলা ডেস্ক: নীরব মোদীকে লন্ডনের রাস্তায় দেখা যাওয়ার পর দেশের অভ্যন্তরে শোরগোল পড়ে গেছে। বিদেশমন্ত্রক এক বিবৃতি দিয়ে জানায়, ব্রিটেনের সরকারের কাছে প্রত্যর্পণের অনুরোধ করা হয়েছে। এখন তাদের জবাবেব অপেক্ষা। ফেরার হিরে ব্যবসায়ীকে ভারতের হাতে তুলে দিতে প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে সরকারের যে কোনও আপত্তি নেই, ব্রিটেনের তরফে তা বুঝিয়ে দেওয়া হল নয়াদিল্লিকে। ভারতের অনুরোধ বিবেচনার জন্য তা আদালতে পাঠিয়ে দিয়েছেন ব্রিটেনের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাজিদ জাভিদ। সে কথা জানিয়েও দেওয়া হয়েছে নীরব মোদীর বিরুদ্ধে ব্যাঙ্ক প্রতারণার অভিযোগের তদন্তকারী সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডাইরেক্টরেট (ইডি)-কে।

ব্রিটেনের একটি দৈনিকের খবরে দেখা যায়, পঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক (পিএনবি) কেলেঙ্কারির প্রধান অভিযুক্ত নীরব মোদী এখন রয়েছেন লন্ডনের ওয়েস্ট এন্ড এলাকায়। সেন্টার পয়েন্ট টাওয়ার ব্লকে। ৮০ লক্ষ পাউন্ড মূল্যের তিন শয়নকক্ষের একটি বিলাসবহুল ফ্ল্যাটে। যার ভাড়া মাসে আনুমানিক ১৭ হাজার পাউন্ড। লন্ডনে তিনি হিরের নতুন একটি ব্যবসাও শুরু করেছেন।

ইডি শনিবার জানিয়েছে, নীরব মোদীকে ভারতের হাতে প্রত্যর্পণের জন্য দিল্লির তরফে যে অনুরোধ জানানো হয়েছিল থেরেসা মে সরকারের কাছে, আইনি প্রক্রিয়া শুরু করার জন্য ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাজিদ জাভিদ সেই অনুরোধ লন্ডনের ওয়েস্টমিনিস্টার ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে পাঠিয়ে দিয়েছেন। ব্রিটেনের সরকারের তরফে দু’দিন আগে তা সরকারি ভাবে ইডিকে জানিয়েও দেওয়া হয়েছে।