টিডিএন বাংলা ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যবর্তী নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট দল থেকে দুজন মুসলিম নারী মার্কিন কংগ্রেস সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। তারা হচ্ছেন ফিলিস্তিনি-আমেরিকান রাশিদা তাইব ও সোমালি-আমেরিকান ইলহান ওমর। যুক্তরাষ্ট্রে মুসলিম বিরোধী মনোভাব যখন ক্রমবর্ধমান সে সময়েই মার্কিন ভোটদাতারা এ দুজন মুসলিম নারীকে নির্বাচিত করলেন। খবর আল জাজিরা ও খালিজ টাইমস।

রাশিদা মিশিগানের ১৩তম কংগ্রেসীয় জেলা থেকে নির্বাচিত হয়েছেন। সেখানে তিনিই ছিলেন দলের একমাত্র প্রার্থী। ৪২ বছর বয়স্কা রাশিদা ডেট্রয়েটে এক ফিলিস্তিনি অভিবাসী পরিবারের সন্তান। ২০০৮ সালে তিনি মিশিগান আইন সভার প্রথম মুসলিম নারী সদস্য নির্বাচিত হয়ে ইতিহাস সৃষ্টি করেন। পেশায় তিনি আইনজীবীী।
ঘন্টায় ১৫ ডলার মজুরি নিশ্চিত করা, চিকিৎসা সেবা ও সামাজিক নিরাপত্তার মত কল্যাণ কর্মসূচির বাজেট কর্তন প্রতিরোধ প্রভৃতি তার নির্বাচনী অঙ্গীকার।

ইলহান ওমর নির্বাচিত হয়েছেন দেশের মধ্যপশ্চিমে মিনেসোটার কংগ্রেসীয় পঞ্চম জেলা থেকে। তিনি ১৪ বছর বয়সে গৃহযুদ্ধ কবলিত সোমালিয়া থেকে পালিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে আসেন। তারও রয়েছে অনুরূপ নির্বাচনী অঙ্গীকার যার মধ্যে আছে সর্বজনীন স্বাস্থ্য সেবা ও কলেজে বিনা ফি-তে শিক্ষা লাভ।
খবরে বলা হয়েছে, তাদের দুজনকে নিয়ে এবার মার্কিন কংগ্রেসে মুসলিম সদস্যের সংখ্যা ৩ জনে দাঁড়াল। অন্য জন হচ্ছেন আফ্রিকান-আমেরিকান মুসলিম অ্যান্ড্রে কারসন। তিনি ইন্ডিয়ানা আসনে পুননির্বাচিত হয়েছেন।
কাউন্সিল অন আমেরিকান-ইসলামিক রিলেশন্স (সিএআইআর) ২০১৮ সালে মুসলিম বিদ্বেষী অপরাধ ২১ শতাংশ বৃদ্ধি পাওয়ার কথা জানিয়েছে।