টিডিএন বাংলা ডেস্ক: ভারত সফরে আসছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আগামী ফেব্রুয়ারি মাসের শেষের দিকে ভারত সফরে আসতে পারেন ট্রাম্প। তবে নির্দিষ্ট করে এখনও বলা হয়নি কোন দিনে তিনি আসবেন। কারণ ট্রাম্পের ইমপিচমেন্টের পরে হোয়াইট হাউসে যে ভোটাভুটি হওয়ার কথা ছিল সেটি কবে অনুষ্ঠিত হবে তার দিনক্ষণ বিচার করেই মার্কিন প্রেসিডেন্টের ভারত সফরের দিন স্থির করা হবে বলে জানা যাচ্ছে। সূত্রের খবর, এই চলতি সপ্তাহেই নয়াদিল্লীতে আসছে মার্কিন নিরাপত্তা সংস্থার একটি দল। ট্রাম্প এলে তার নিরাপত্তা ব্যবস্থা কি হবে সেই নিয়ে খতিয়ে দেখতে।

জানা গিয়েছে, ২০২০ সালের প্রজাতন্ত্র দিবসে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার জন্য ট্রাম্পকে আমন্ত্রণ করা হয়েছিল। কিন্তু তিনি সেই আমন্ত্রণ রাখতে পারছেন বলে জানিয়ে দিয়েছেন। পরিবর্তে ফেব্রুয়ারির শেষের কয়েকটা দিনই এই সফরের জন্য নির্দিষ্ট করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

সূত্রের খবর, জানুয়ারির ৭ তারিখে ডোনাল্ড ট্রাম্পের সাথে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ফোনে কথা হয়। কথোপকথনের সময়েই ট্রাম্পকে ভারত সফরে আসার আমন্ত্রণ জানান মোদী। ইতিমধ্যেই আমেরিকায় নিযুক্ত ভারতের রাষ্ট্রদূত হর্ষবর্ধন শ্রীংলা মার্কিন প্রেসিডেন্টের সাথে আলোচনাও করেছেন বলে জানা যাচ্ছে।

উল্লেখ্য, ২০১৯ এর জুনে ভারতের ‘প্রেফারেনশিয়াল এক্সপোর্ট’স্ট্যাটাস বাতিল করে দেয় আমেরিকা। অর্থাৎ কিছু নির্দিষ্ট ভারতীয় পণ্যে শুল্কে ছাড় দেওয়া বন্ধ করে দেয় মার্কিন প্রশাসন। কিন্তু ট্রাম্পের এই ভারত সফরের ফলে ভারত-আমেরিকার বাণিজ্য জোট খুলে যেতে পারে বলে আশাবাদী অর্থনীতিবিদেরা। অন্যদিকে এই বিষয়ে আমেরিকার অভিযোগ যে মার্কিন পণ্যের জন্য ভারত তার বাজার পুরোপুরি উন্মুক্ত করছেনা।

ট্রাম্পের এই সফরে ‘প্রেফারেনশিয়াল এক্সপোর্ট’স্ট্যাটাস ভারতকে আবার ফিরিয়ে দেবে বলে আশা করা যাচ্ছে। পাশাপাশি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আরও বিনিয়োগ বাড়াতে পারে ভারত। আমেরিকা থেকে অপরিশোধিত তেল আমদানি বৃদ্ধি পেতে পারে বলেও আশা করা যাচ্ছে।