টিডিএন বাংলা ডেস্ক : জিম্বাবুয়ের ক্ষমতাসীন জানু-পিএফ পার্টির প্রধানের পদ থেকে রবার্ট মুগাবেকে অপসারণ করা হয়েছে।
প্রাক্তন ভাইস প্রেসিডেন্ট এমারসন এমনাঙ্গাগওয়াকে তার স্থলাভিষিক্ত করা হয়েছে। রবিবার দলীয় বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। খবর বিবিসির।
দলীয় প্রধানের পদ থকে সরিয়ে দিলেও এখনও তিনি দেশটির প্রেসিডেন্ট হিসেবে বহাল আছেন। তবে পদত্যাগের জন্য তার ওপর চাপ ক্রমাগত বাড়ছে।
মুগাবেকে অপসারণের এ দলীয় সিদ্ধান্তকে এখনও আনুষ্ঠানিক রূপ দেয়া হয়নি। এই সিদ্ধান্ত হওয়ার পর পার্টির ডেলিগেটরা উল্লাস করতে থাকেন।
দু’সপ্তাহ আগে মুগাবে প্রাক্তন ভাইস-প্রেসিডেন্ট এমনাঙ্গাগওয়াকে বরখাস্ত করেছিলেন। তিরানব্বই বছর বয়স্ক মুগাবে তার স্ত্রী গ্রেসকে ভাইস-প্রেসিডেন্ট করার চেষ্টা করেন। এরপর থেকেই জিম্বাবুয়েতে নাটকীয় সব ঘটনা ঘটতে থাকে।
গত বুধবার মুগাবেকে গৃহবন্দি করে সেনাবাহিনী। হারারের মতো বড় শহরগুলোর রাস্তায় মুগাবের বিরুদ্ধে হাজার হাজার লোক বিক্ষোভ করছে।
এর আগে জিম্বাবুয়ের ক্ষমতাসীন জানু-পিএফ পার্টির প্রভাবশালী যুবলীগ প্রেসিডেন্ট রবার্ট মুগাবেকে পদ ছেড়ে দেয়ার ওপর চাপ দেয়।
তারা মিসেস মুগাবের বিরুদ্ধে ‘উচ্ছৃঙ্খল এবং ধূর্ত’ আচরণের অভিযোগ আনে এবং উৎখাত হওয়া ভাইস-প্রেসিডেন্ট এমারসন এমনাঙ্গাগওয়াকে তার পদে পুনঃস্থাপন করারও আহ্বান জানায়।