টিডিএন বাংলা ডেস্কঃ টানা ১৯ বছর ধরে পাবলিক টয়লেটে বসবাস করছেন ৬৫ বছর বয়সী মহিলা! পাননা কোনো পেনশন। এমনই এক হৃদয় বিদারক ঘটনার কাহিনী সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল। ঘটনা তামিলনাড়ুর মাদুরাইয়ের রামনদ এলাকার।

জানা যায়, গত ১৯ বছর ধরে করুপায়ী নামে একজন ৬৫ বছর বয়সী মহিলা পাবলিক টয়লেটে বসবাস করছেন। তার জীবন কাহিনী সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে ইতিমধ্যেই চারদিকে ছড়িয়ে পড়েছে। করুপ্পায়ী কীভাবে টয়লেটের মধ্যেই তার থাকার ব্যবস্থা করেন সেই ছবি বার্তা সংস্থা এএনআই পোস্ট করলে পরে তা ভাইরাল হয়ে যায়।

বেদনাদায়ক ছবিগুলি টুইট করে ক্যাপশনে লিখা হয়েছে, “৬৫ বছর বয়সী করুপ্পায়ী গত ১৯ বছর ধরে রমনাদে একটি পাবলিক টয়লেটে বেঁচে আছেন। টয়লেট পরিষ্কার করে এবং জনসাধারণের কাছ থেকে অল্প পরিমাণে এটি ব্যবহারের জন্য টাকা নিয়ে জীবিকা নির্বাহ করছেন”।

স্পষ্টতই মহিলা টয়লেট পরিষ্কার করে জীবিকা নির্বাহ করেন। খবরে বলা হয়েছে, এটি ব্যবহারের জন্য জনসাধারণের কাছ থেকে অল্প পরিমাণে চার্জ নিয়ে তিনি তার আয় উপার্জন করেন। ছবিগুলিতে, কারুপ্পেই কীভাবে একটি ছোট্ট পাবলিক টয়লেটে থাকে এবং বেঁচে থাকার জন্য প্রয়োজনীয় জিনিসগুলিও নেই তা দেখতে পাওয়া যায়।

কেন তাকে টয়লেটে থাকতে বাধ্য হয়েছিল সে সম্পর্কে কথা বলার সময়, কারুপ্পায়ী বলেছিল, “আমি প্রবীণ নাগরিক পেনশনের জন্য আবেদন করেছিলাম কিন্তু পাইনি। আমি কালেক্টরের অফিসে অনেক কর্মকর্তার কাছে গিয়েছিলাম তবে কিছুই বাস্তবে পরিণত হয়নি।” তিনি আরও বলেছেন, “আমার আয়ের অন্য কোনও উৎস নেই। তাই আমি এখানে এই পাবলিক টয়লেটে থাকি I আমি প্রতিদিন ৭০-৮০ টাকা উপার্জন করি। আমার এক মেয়ে আছে সে কখনও আমাকে দেখতে আসে না।”

তার ছবিগুলি ভাইরাল হওয়ার পরে, টুইটারের মাধ্যমে তাকে সাহায্য করার জন্য সরকারের কাছে অনুরোধ শুরু করেছেন অনেকেই।