টিডিএন বাংলা ডেস্ক: নিউ জিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে গুলি চালনার ঘটনার পর থেকে নিখোঁজ ৯ ভারতীয়। নিহত হায়দরাবাদের বাসিন্দা ইকবাল আহমেদ জাহাঙ্গির। গত ১৫ বছর তিনি ক্রাইস্টচার্চে একটি রেস্টুরেন্ট চালাতেন। এমনটাই দাবি করেছেন আসাদউদ্দিন ওয়াইসি।

শুক্রবার ক্রাইস্টচার্চের ২টি মসজিদে ঢুকে গুলি চালায় আততায়ীরা। এদিন জুম্মার বিশেষ নামাজের সময়ে গুলি চালানো হয়। ওই হামলায় এখনও প্রর্যন্ত ৪৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত ৪০। এদের মধ্যে ২০ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

আহতদের মধ্যে রয়েছেন আহমেদাবাদের বাসিন্দা খোকার(৬৫)। স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে ২মাস আগে ক্রাইস্টচার্চে গিয়েছিলেন ছেলে ইমরানের সঙ্গে দেখা করতে। খোকারের এক আত্মীয় সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন, খোকারের বাঁচার আশা খুবই কম।

এদিকে, নিউ জিল্যান্ড নিযুক্ত ভারতীয় হাই কমিশনার সঞ্জীব কোহলি টুইট করেছেন, ‘বিভিন্ন সূত্র থেকে যেসব খবর পাওয়া যাচ্ছে তাতে দেখা যাচ্ছে ৯ ভারতীয়র এখনও পর্যন্ত কোনও খোঁজ নেই। তবে কেউ নিহত কিনা তা নিউ জিল্যান্ড সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়নি। নিহতদের মধ্যে অনেকেই ভারতীয় বংশোদ্ভুত, আবার কেউ ভারতীয়। এঁদের পরিবারের প্রতি আমাদের সমবেদনা রইল।’ প্রসঙ্গত, ভারতীয় হাইকমিশনের তরফে সাহায্যের জন্য একটি হেল্পলাইন খোলা হয়েছে।

এদিকে,আসাদউদ্দিন ওয়াইসি সংবাদমাধ্যমে দাবি করেছেন, নিউ জিল্যান্ডের মসজিদে গুলিচালনায় ২ ভারতীয়র মৃত্যু হয়েছে। তৃতীয়জন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন। নিউ জিল্যান্ডে নিহত এক হায়দরাবাদির ভাইয়ের যত দ্রুত সম্ভব ভিসার ব্যবস্থা করতে বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজকে অনুরোধ করেছেন ওয়াইসি।