টিডিএন বাংলা ডেস্ক: শনিবার শ্রীনগরের হযরতবাল মাজারে অল ইন্ডিয়া সুফি সাজ্জাদানাশিন কাউন্সিলের (এআইএসএসসি)একটি সুফি মুসলিমদের প্রতিনিধি দলকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখানো হয়েছিল। সৈয়দ নাসিরউদ্দিন চিশতির নেতৃত্বে ১৭ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল, যার মধ্যে ছিলেন দরগাহ আজমির শরীফের প্রধান সৈয়দ জয়নুলবীদিনের পুত্র। তারা ১২ ই অক্টোবর অনুচ্ছেদ বাতিলের পরে “কাশ্মীর পরিস্থিতি দেখার জন্য” উপত্যকায় যান।

শনিবার, মাজারে দুপুরের নামাজের পরে, জাফরান পোশাক পরিহিত সূফী আলেমরা স্থানীয়দের সাথে যখন যোগাযোগের চেষ্টা করছিলেন তখন তাঁদের ঘিরে ভারতবিরোধী স্লোগান দেওয়া হয় এবং তাঁদের হেনস্থা করা হয়।প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন যে, বিক্ষোভকারীরা আলেমদের ঘিরে ফেলেন এবং ‘আমরা স্বাধীনতা চাই’ এর মতো স্লোগান দেন। চিশতী এই দাবির সত্যতা খণ্ডন করে বলেন যে মাজারে আগত আলেমদের প্রচুর শ্রদ্ধার সাথে স্বাগত জানানো হয় এবং কেউ কেউ তাঁদের হাতে চুমুও দিয়েছেন। কেন্দ্রের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিল করার পর থেকে সারাদেশের বিভিন্ন দরগাহ থেকে সূফী নেতাদের এবং আধ্যাত্মিক প্রধানদের প্রতিনিধি দল উপত্যকা পরিদর্শন করেছেন।

জাফরান পোশাক পরার বিষয়ে চিশতী বলেন, রঙটি সুফি ইসলামের সাথে যুক্ত।তিনি আরও বলেন যে, “রঙটি হিন্দুধর্মের অন্তর্গত তবে এটি প্রায় আট শতাব্দী আগে খাজা মইনুদ্দিন চিশতী (ভারতে সুফি ইসলামের প্রতিষ্ঠাতা) গ্রহণ করেছিলেন। আমরা এখানে সুফিবাদ প্রচার করতে এসেছি এবং এর বার্তাটি হল ভালবাসা, ভালবাসা এবং ভালবাসা…। সমস্ত ভারতীয় আমাদের ভাই-বোন। ”