টিডিএন বাংলা ডেস্ক: শেষের শুরু, নাকি অন্য কোনও ইঙ্গিত? প্রশ্ন উঠছেই, উঠাটাই স্বভাবিক। কেননা একের পর এক রাজ্য থেকে শুরু করে যেভাবে বিশ্ববিদ্যালয়গুলিও গেরুয়া শিবিরের হাতছাড়া হচ্ছে, তাতে অন্য কোনোই ইঙ্গিত মিলছে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। এবার জেএনইউয়ের পর খোদ বিজেপির গড় ও হিন্দুত্বের পরীক্ষাগার হিসেবে পরিচিত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির রাজ্য গুজরাটের সেন্ট্রাল ইউনিভার্সিটির ছাত্র সংসদ নির্বাচনে মুখ থুবড়ে পড়ল বিজেপির ছাত্র সংগঠন এবিভিপি। এবিভিপিকে হারিয়ে জয়ী এসএফআই, বাপসা ও এলডিএসএফ জোট।

সূত্রের খবর, সেন্ট্রাল ইউনিভার্সিটি অব গুজরাটের ছাত্র সংসদ নির্বাচনে পাঁচটি আসনের মধ্যে পাঁচটি আসনই হেরে বসেছে এবিভিপি। এর মধ্যে তিনটি আসনে জয়লাভ করেছে বামেরা। বাকি দু’টি আসনে নির্দল প্রার্থীদের জয়ী করেছেন পড়ুয়ারা। একটি করে আসনে জয়লাভ করেছে এসএফআই ও এলডিএসএফ। অন্য একটি আসনে জিতেছে বিরসা আম্বেদকর ফুলে স্টুডেন্টস অ্যাসোসিয়েশনের প্রতিনিধি।

উল্লেখ্য, এর আগেও মোদির নির্বাচনী কেন্দ্র বারানসী বিশ্ববিদ্যালয়েও এবিভিপির লজ্জাজনক হার হয়েছে। সম্প্রতি আরএসএস এর ঘাটি বলে পরিচিত নাগপুরের জেলা পরিষদ নির্বাচনেও লজ্জাজনক ভাবে পরাজয় হয়েছে গেরুয়া শিবিরের। দেশ জুড়ে নাগরিকত্ব আইন বিরোধী আন্দোলনের প্রেক্ষিতে উগ্র হিন্দুত্ববাদে বিশ্বাসী বিজেপি এবং তাদের শাখা সংগঠনের পরাজয় রাজনৈতিক মহলে বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছেন পর্যবেক্ষকরা। তবে একে একে যেভাবে সমস্ত জায়গায় বিজেপির ভরাডুবি হচ্ছে তাতে গেরুয়া শিবিরের কাছে বড় ধাক্কা বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।