রেবাউল মন্ডল, টিডিএন বাংলা, কলকাতা: জাল নোট বন্ধ, কালোটাকা উদ্ধার ও সন্ত্রাসবাদ মোকাবিলার নামে কেন্দ্র সরকারের নোটবাতিল সিদ্ধান্তে দেশব্যাপী যে অর্থনৈতিক জরুরি অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে তার বর্ষপূর্তিতে ৮ই নভেম্বর দেশজুড়ে ‘প্রতারণা দিবস’ পালন করতে যাচ্ছে ওয়েলফেয়ার পার্টি অফ ইন্ডিয়া। প্রাথমিকভাবে নরেন্দ্র মোদির এই লক্ষ্যকে স্বাগত জানিয়েছিল দেশের আমজনতা। পরবর্তীতে নোটের লাইনে বেঘোরে প্রাণ গেছে শতাধিক সাধারণ মানুষের। অবশ্য নোটবাতিলকে শুরু থেকেই কেন্দ্রের ষড়যন্ত্র বলে অভিযোগ করেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

ওয়েলফেয়ার পার্টির রাজ্য সভাপতি শ্রী মনসা সেন বলেন, নোট বাতিলের সিদ্ধান্তের লক্ষ্য পূরণে সম্পূর্ণ ব্যর্থ নরেন্দ্র মোদি সরকার। জালনোট ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে অভিযান ব্যর্থ হয়েছে। কাজ হারিয়েছে দেশের লক্ষ লক্ষ মানুষ। এবিষয়ে মানুষকে সচেতন করতে রাজ্যের প্রতিটি জেলা ও ব্লক পর্যায়ে পার্টির পক্ষ থেকে বিভিন্ন প্রতিবাদ কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে বলেও তিনি জানান।

জিএসটি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, উপযুক্ত পরিকাঠামো না গড়েই জিএসটি চালু করে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পে সর্বনাশ ডেকে এনেছে। দেশের সর্বসাধারনের কাছে ট্যাক্স নিয়ে ধনী গোষ্ঠীর সুবিধা পাইয়ে দেওয়া হয়েছে। এর বাইরে আমরা আর কিছুই মনে করিনা।এদিকে নোটবন্দি ও জিএসটি কে হাতিয়ার করে বিরোধীরা একজোট হয়ে নেমে পড়েছে রাজনৈতিক ময়দানে।

যে দেশের সমস্ত গ্রামে ব্যাঙ্কিং পরিষেবা নেই সে দেশকে ডিজিটাল করার লক্ষ্যে নরেন্দ্র মোদি কেন নোট বাতিলের মত হটকারী সিদ্ধান্ত নিয়ে ১২৫ কোটি মানুষকে ব্যাংকের লাইনে দাঁড় করালেন প্রশ্ন বুদ্ধিজীবী মহলের। নোটবাতিল ও জিএসটি নিয়ে ব্যবসায়িক থেকে আমজনতার পুঞ্জীভূত অসন্তোষকে নরেন্দ্র মোদি মন কি বাতের বাগ্মিতায় কতদিন ঠেকিয়ে রাখতে পারেন এখন সেটাই দেখার।