টিডিএন বাংলা ডেস্ক: ‘অনুষ্কা দেশদ্রোহী, তাকে তালাক দিক বিরাট’, সকলকে চমকে দিয়ে এমনটাই মন্তব্য করলেন বিজেপি বিধায়ক নন্দকিশোর গুর্জর। ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও বলিউড অভিনেত্রী অনুষ্কা শর্মার দাম্পত্য নিয়ে সারা পৃথিবীতে চর্চা চলে ৷ এর মধ্যেই বিজেপি বিধায়কের এমন মন্তব্যে অবাক সবাই।

নন্দকিশোর গুর্জর একটি সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, ‘বিরাট কোহলি দেশভক্ত , দেশের জন্য খেলেন, ওঁর তাড়াতাড়ি অনুষ্কাকে তালাক দিয়ে দেওয়া উচিত ৷ কারণ এই বিষয়ে না ওঁর কোনও ভূমিকা রয়েছে , না এই ধরনের বিষয়ে উনি যুক্ত থাকেন ৷ ’ তাই এই ধরনের দেশদ্রোহী মেয়ের সঙ্গে সংসার করা উচিত নয় বিরাটের আর তাঁকে দ্রুততার সঙ্গে ডিভোর্স দেওয়া উচিত ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়কের বলে দাবি বিজেপি নেতার৷

উল্লেখ্য, অনুষ্কা কিছুদিন আগে পাতাললোক নামে একটি ওয়েব সিরিজে তৈরি করেছেন। আর তাতেই বিজেপি বিধায়কের আপত্তি। কারণ, নন্দ কিশোর গুর্জরের দাবি, জাতি-ধর্ম শেষ করে দেওয়া অনৈতিক কাজ দেখানো ওয়েব সিরিজে ছবি ব্যবহার করা হয়েছে ৷ এই পাতাললোক সিরিজের প্রযোজনায় যেহেতু অনুষ্কা শর্মা তাই তাঁর অনুমতিতেই এসব হয়েছে এবং তিনি দেশদ্রোহের কাজ করেছেন ৷

নন্দ কিশোর গুর্জরের বক্তব্য, অনুষ্কা যে ওয়েব সিরিজ বানিয়েছেন তা দেশদ্রোহের ঘটনা ৷ এর জন্য অনুষ্কার ওপর আইনি পদক্ষেপ নেওয়া উচিত৷ এর আগে ওয়েব সিরিজ পাতাললোকের জন্য আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার কথা বলেছিলেন ৷ পাতাললোক ওয়েব সিরিজে বালকৃষ্ণণ বাজপেয়ী নামের এক চরিত্র যে অন্যায়ের সঙ্গে যুক্ত তার বিবরণ দিতে গিয়ে অন্য বিজেপি নেতার ছবি দেখানো হয় ৷ আর সেই ছবিটি তাঁরই ৷ তাঁর সাফ দাবি, তাঁদের একাধিক নেতার ছবি কী করে পাতাললোক ওয়েব সিরিজে দেখানো হয়েছে ৷