টিডিএন বাংলা ডেস্ক: ভরা ভোটের মরসুমে বিপাকে কেজরিওয়াল। কংগ্রেসের সঙ্গে জোট নিয়ে এখনও দ্বিধায় রয়েছেন তিনি। এরই মধ্যে তাঁর চিন্তা কয়েকগুণ বেড়ে যেতে পারে। কারণ তাঁর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছে দিল্লির এক আদালত। আর তা জামিন অযোগ্য।

শুধু কেজরিওয়ালই নন, দিল্লির উপমুখ্যমন্ত্রী মণীশ শিশোদিয়া ও স্বরাজ ইন্ডিয়ার সভাপতি যোগেন্দ্র যাদবের নামেও এই গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে।

কিন্তু কেন জামিন অযোগ্য গ্রেফতারি পরোয়ানা? ২০১৩ সালে পুরানো একটি মামলার এই নির্দেশ আদালতের। সুরেন্দ্র কুমার শর্মা নামে এক আইনজীবীর দায়ের করা মামলার ভিত্তিতে এমন নির্দেশ। কেজরিওয়াল সহ সকলেই অনুপস্থিত ছিলেন। তার পরিপ্রেক্ষিতে ক্ষুব্ধ দিল্লি কোর্ট সকলের নামে গ্রেফতারি পরোয়ানার নির্দেশ দেয়৷ বুধবারও ফের সেই মামলায় শুনানি হলে পুরনো নির্দেশই বহাল রাখেন বিচারক।

মামলাকারী সুরেন্দ্র কুমার শর্মার অভিযোগ, তাঁর কাজে সন্তোষ প্রকাশ করে কেজরিওয়াল, মণীশ শিশোদিয়া ও যোগেন্দ্র যাদব তাঁকে দিল্লি বিধানসভা ভোটে টিকিট দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। তাদের আশ্বাস পেয়ে সুরেন্দ্র আবেদন পত্র পূরণ করেন। কিন্তু পরে আপ নেতারা তাঁকে টিকিট দিতে অস্বীকার করেন। আর সেই নিয়েই বিবাদের সূত্রপাত।