টিডিএন বাংলা ডেস্ক : সম্প্রতি গোরক্ষার নামে লাগাতার জুলুম চলছে গোটা দেশ জুড়ে। এই পরিস্থিতির শিকার হতে হয়েছে অনেককেই। এমনকি গোরক্ষকদের হাতে প্রাণ গিয়েছেও বহুজনের। অবশেষে পরিস্থিতি হাতের নাগাল বাইরে চলে গিয়েছে অনুমান করে লাগাম ধরেছিলেন খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী নিজেই। আইন নিজের হাতে তুলে না নেওয়ার আবেদন করেছিলেন সকল দেশবাসীর কাছে। রবিবার মহারাষ্ট্রের আহমেদনগর জেলায় পুনেতে গরুবোঝাই একটি টেম্পো ঘিরে গোরক্ষক ও আমজনতার সংঘর্ষের ঘটনা ঘটল। এবার জনতার হাতে আহত হলেন খোদ গোরক্ষকরাই। মহারাষ্ট্রের আহমেদনগরের ঘটনা। আহত হয়েছেন মোট ৭ জন গোরক্ষক।

গোরক্ষকদের অভিযোগ, পুনে থেকে বেআইনিভাবে টেম্পোয় গরু বোঝাই করে কসাইখানায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। টেম্পোটি মাঝ পথে রুখে দেয় তারা। তারপর টেম্পোটি নিয়ে শৃঙ্গোন্দা পুলিশ স্টেশনে নিয়ে যায়। থানায় থেকে অভিযোগ জানিয়ে ফেরার পথে ধারালো অস্ত্রো ও পাথর হাতে পঞ্চাশ জন তাদের ঘিরে ফেলে তাদের। গোরক্ষদের আরও অভিযোগ, এদের মধ্যে ছিল টেম্পো মালিক, চালক থেকে শুরু করে স্থানীয় কসাইরাও। ঘটনায় টেম্পো মালিক ওয়াহিদ শেখ ও চালক রাজু ফতরুভাই শেখকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাদের বিরুদ্ধে পশুর ওপর নিষ্ঠুরতা সংক্রান্ত অভিযোগ দায়ের হয়েছে। মোট ৩০ জনের বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টা, ডাকাতি ও অন্যান্য ধারায় মামলা রুজু করেছে পুলিশ। যদিও অভিযুক্তরা পলাতক। তবে উদ্ধার করা গিয়েছে ২টি গরু ও ১০টি ষাঁড়।