টিডিএন বাংলা ডেস্ক: করোনা মোকাবেলায় ভোপাল পরিষ্কারে ব্যস্ততার সময়ে মায়ের মৃত্যু সংবাদ। কিন্তু তারপরেও ডিউটি থেকে একচুল নড়াতে পারলো না আধিকারিক আশরাফ আলীকে। ভোপাল মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশনের সাফাই বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত আধিকারিক আশরাফ আলীর এই কর্মকান্ডে কার্যত সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রশংসার জোয়ার।

সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে, বুধবার সকাল আটটা নাগাদ মৃত্যু হয় ভোপাল মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশনের সাফাই বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত আধিকারিক আশরাফ আলীর বৃদ্ধা মা। কিন্তু করোনার এই কঠিন পরিস্থিতিতে মায়ের মৃত্যু সংবাদেও ডিউটিতে অনড় ছিলেন তিনি।

সারাদিন ডিউটি করে বিকেলে গিয়ে মায়ের শেষকৃত্যে যোগ দেন তিনি।এনডিটিভিতে এক সাক্ষাৎকারে আশরাফ আলী জানান, সকাল আটটায় আমার মায়ের মৃত্যুর খবর পেয়েও আমি যাইনি। কারণ আমি চাইনি অন্য মায়েদের কিংবা আমার মাতৃভূমিকে বিপদে ফেলতে। সেই মুহূর্তে ওটাই ছিল আমার একমাত্র কর্তব্য। এদিকে আশরাফ আলীর এধরনের কাজ সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ্যে আসতেই প্রশংসার জোয়ার। মায়ের মৃত্যুতেও এভাবে কাজ করে যাওয়ায় আশরাফ আলীকে সোশ্যাল মিডিয়ায় কুর্নিশ জানিয়েছেন সকলেই।