টিডিএন বাংলা ডেস্ক : পেশায় চিকিৎসক উত্তরপ্রদেশের রাজনগরের এক তরুণী তাঁর সহপাঠী যুবকের সঙ্গে আদালতে গিয়ে বিয়ে করেন। বিয়েতে ছিল দুই পরিবারের সম্মতিও। আবার দুজনেই প্রাপ্ত বয়স্ক। বিয়ের পর দুই পরিবারের পক্ষ থেকে আয়োজন হয় অনুষ্ঠানেরও।

এতেও ক্ষিপ্ত উত্তরপ্রদেশের গায়িজাবাদের বিজেপি কর্মী সমর্থকরা। ঐ যুবক যুবতীর ধর্ম ভিন্ন একথা জানাজানি হতেই মাথা গরম যোগী বাহিনীর। লাভ জিহাদের অভিযোগ তুলে মেয়ের বাড়ির সামনে বিক্ষোভ দেখায় তারা। বিক্ষোভকারীদের নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশকে লাঠিও চালাতে হয়। এরপর বিজেপি পক্ষ থেকে পুলিশের দিকে অভিযোগের আঙুল তুলে মুখ্যমন্ত্রী যোগীর কাছে অভিযোগ জানানোর কথাও বলেছে।

 

মেয়ের পরিবারের লোকজনও ঘটনাস্থলে এসে বিক্ষোভকারীদের বোঝানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু এতেও তারা খুশি নন। ভিড় বাড়তেই থাকে কনের বাড়ির সামনে। এই অবস্থায় পুলিশ লাঠি চালিয়ে বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে বাধ্য হয়। এরপর তারা রাস্তা অবরোধ করে স্লোগান দেন। পরে এসএসপি ঘটনার তদন্তের আশ্বাস দিলে শান্ত হয় বিকক্ষোভকারীরা। দুই পরিবারের সম্মতিতেই ঐ বিয়ে হয়েছে বলেও জানিয়েছে ডিএসপি।