টিডিএন বাংলা ডেস্কঅধিকাংশ বুথ ফেরত সমীক্ষার পূর্বাভাসে অ্যাডভান্টেজ মোদী। এতে বিরোধী শিবিরে চিন্তা বেড়েছে। বেড়েছে তৎপরতা। সকালে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে ফোনে কথা বলেন অখিলেশ যাদব। তারপরে বিএসপি সুপ্রিমো মায়াবতীর সঙ্গে তাঁর জরুরি বৈঠক হয়।

এদিকে রাজনৈতিক মহলে খবর ছিল, তেলেগু দেশম পার্টির সুপ্রিমো চন্দ্রবাবু নাইডুর নেতৃত্বে সোনিয়া এবং রাহুলের সঙ্গে বৈঠক করতে পারেন মায়াবাতী। কিন্তু দলের তরফে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়এই মুহূর্তে রাজধানীমুখো হচ্ছেন না মায়াবতী। তবেবুথ ফেরত সমীক্ষা প্রকাশ হতেই বুয়ার বাসভবনে যান বাবুয়া। তাঁদের পনেরো-কুড়ি মিনিটের বৈঠক হয় বলে জানা যায়।

বুথ ফেরত সমীক্ষার আভাস, উত্তর প্রদেশে বুয়া-বাবুয়ার জোটেরও আশাবাদী ফল হচ্ছে না। তবেগত বারের থেকে ২০-৩০টি আসন বাড়াতে পারে এসপি ও বিএসপি। বিজেপিকে রুখতে কংগ্রেসকে বাদ দিয়ে জোট করেন অখিলেশ ও মায়াবতী। তাঁরা দাবি করেছিলেনউত্তর প্রদেশে মহাজোট ভাল ফল তো করছেইজাতীয় স্তরে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকাও নিতে পারে। তবেবুথ ফেরত সমীক্ষা অনুযায়ীইউপিএ ১২০টির মতো আসন মিললে মায়বতীরা কতখানি নির্ণায়ক শক্তি হতে পারেন এ নিয়ে ইতিমধ্যে জল্পনা শুরু হয়ে গিয়েছে। যদিও বিরোধীদের দাবিএ সব সমীক্ষায় সত্যতা নেই। আগামী ২৩ মে পর্যন্ত জনগণকে ধৈর্য ধরার পরামর্শ দেন তাঁরা।