টিডিএন বাংলা ডেস্ক: মোদি সরকারের নতুন বিতর্কিত নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে দেশব্যাপী আন্দোলন অব্যাহত। দেশ ছাড়িয়ে অনেক আগেই বিভিন্ন বিদেশের মাটিতেও সিএএ-এনআরসি বিরোধী বিক্ষোভ আছড়ে পড়েছে। তবে এবার শুধু আন্দোলন নয় সিএএ-এনআরসি বিরোধী প্রস্তাবও পাশ হল বিদেশের কাউন্সিলে। মোদি সরকারের তথা বিজেপির তীব্র অস্বস্তি বাড়িয়ে আমেরিকার সিয়াটেল কাউন্সিলে পাশ হয়ে গেল সিএএ-এনআরসি বিরোধী প্রস্তাব। সোমবার আমেরিকার অন্যতম শক্তিশালী সিটি কাউন্সিল সিয়াটেল সিটি কাউন্সিলে সর্বসম্মতভাবে নাগরিকত্ব সংশোধন আইন এবং জাতীয় নাগরিক পঞ্জী বিরোধী প্রস্তাব পাশ হয়ে গেল।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে সংসদে পাস হওয়া এই নতুন নাগরিকত্ব আইনটিতে পাকিস্তান, বাংলাদেশ ও আফগানিস্তানের নির্যাতিত অমুসলিম ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের ভারতীয় নাগরিকত্ব প্রদানের কথা বলা হয়। এদিকে ধর্ম ও বর্ণ নির্বিশেষে সিয়াটেলের দক্ষিণ এশীয় সম্প্রদায়ের সাথে একাত্মতা প্রকাশও করা হয় ওই প্রস্তাবে।

প্রস্তাবে লেখা হয়, “সিয়াটেল সিটি কাউন্সিল ভারতের জাতীয় নাগরিক পঞ্জী এবং নাগরিকত্ব সংশোধন আইনের বিরোধিতা করে। এই নীতিগুলির মাধ্যমে মুসলিম, নিপীড়িত জাতি, মহিলা, আদিবাসী এবং এলজিবিটি সম্প্রদায়ের প্রতি বৈষম্যমূলক আচরণ করা হবে বলে বলে মনে করা হচ্ছে।”

যদিও ভারতীয় সংসদে এই আইন পাশের পরেই একাধিক ক্ষেত্রে জোরদার সওয়াল করতে দেখা যায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহকে। সংসদে সিএএ পাসের দেশের তারা বারবার জোর দিয়ে বলতে থাকেন এটি দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়। কিন্তু এই আইনের সঙ্গে প্রত্যক্ষভাবে ধর্মীয় যোগের অভিযোগ তুলে বিজেপি সরকারে বিরুদ্ধে তোপ দাগতে থাকে বিরোধীরা।