টিডিএন বাংলা ডেস্ক: দীপাবলির দিন পাড়ার বনধুদের সঙ্গে খেলছিল তিন বছরের মেয়েটি। তখন চকলেট খাওনোর নাম করে ডেকে নিয়ে যায় পাশের বাড়ির দাদা। মুখে পুড়েও দেয় চকলেত। কিন্তু তা খাবার চকলেট নয় আদপে চকলেট বাজি। তারপরে মেয়েটির মুখ থেকে সলতে বের করে তাতে আগুন ধরিয়ে দেয় কিশোরটি। সেই বাজি ফেটে ছিন্নভিন্ন হয়ে যায় তিন বছরের শিসুর মুখ। পুড়ে যায় খাদ্যনালি, রক্তাত্ব অবস্থায় মাটিতে পরে কাতরাতে থাকে সে। তাঁর কান্না ও অন্যন্যদের চিৎকারে ছুটে আসে শিশুটির মা বাবা ও পড়শিরা। তারপর তাঁকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে গেলে বিষ্ফোরণের ভয়াবহতা দেখে শিউরে ওঠেন। চিকৎসা করতে গেলে ৫০ টি সেলাই পরে তাঁর মুখে।

বিভৎস এই ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর প্রদেশের মেরাঠে। অভিযুক্ত কিশোরের নাম হরপাল। প্রথমে শিশুটির মা-বাবা ভেবেছিলেন বোমা ফেটে কোনও বিপত্তি হয়েছে কিন্তু পরে অন্যান্য শিশুদের বয়ানে ভুল ভাঙে। আক্রান্ত শিশুটি মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করছে। শিশুটির বাবা হরপালের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে, সেই ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। ঘটনার পর থেকেই নিখোঁজ হরপাল।

Not available