টিডিএন বাংলা ডেস্ক: আগামীতে আসামে কংগ্রেস- এআইইউডিএফ জোট সরকার হবে বলে মন্তব্য করলেন বদরুদ্দীন আজমল।

বুধবার এআইইউডিএফ সুপ্রিমো তথা মাওলানা বদরুদ্দিন আজমল বরখলার রানীঘাটে পঞ্চায়েত নির্বাচনের প্রচারে এভাবে বিজেপিকে আক্রমণ করেন। তিনি বলেন, এই দল ভারতের সংবিধানকে পরিবর্তন করতে চায়। কোনভাবে সাম্প্রদায়িক বিজেপিকে ক্ষমা করা যায় না। প্রবীণ এআইইউডিএফ কর্মী সিরাজ উদ্দিন বড়ভূঁইয়ার পৌরোহিত্যে সহস্রাধিক কর্মী ও সমর্থকদের উপস্থিতিতে সভায় বদরুদ্দিন আজমল আক্ষেপের সুরে বলেন কংগ্রেসের ভুলে এই দলের প্রতি জন্ম হয়েছে। তবে তিনি আরো বলেন ভবিষ্যতে আর কোনো দিন মোদি প্রধানমন্ত্রী হতে পারবেন না। আগামীতে আসামে কংগ্রেস- এআইইউডিএফ জোট সরকার হবে বলে দাবি করেন তিনি। রাজ্যের অর্থমন্ত্রী হিমন্তবিশ্ব শর্মার কঠোর সমালোচনা করে বলেন, হিমন্ত বিশ্ব শর্মা মাত্র তিন বছর আগে তরুণ গগৈর প্রশংসায় পঞ্চমুখ ছিলেন। সেই হিমন্ তআজকে বিজেপির প্রশংসা করছেন। তিনি হিমন্তবিশ্ব শর্মাকে কংগ্রেস প্রত্যাবর্তনের আহ্বান জানিয়ে বলেন, বিজেপি দলে থেকে তার স্বপ্ন কোনদিন পূরণ হবে না। কংগ্রেসে প্রত্যাবর্তন বা যেকোনো ধর্ম নিরপেক্ষ দলে যোগদানের আহবান জানান। তাহলে হিমন্তের পক্ষে আসামের মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার স্বপ্ন পূরণ হবে।

তিনি আবারও বলেন, এজিপি- বিজেপি মুসলমানদের শত্রু। তিনি পঞ্চায়েত নির্বাচনে ইমান বিক্রি না করার অনুরোধ জানান। তিনি উপস্থিত কর্মী-সমর্থকদের হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন ভোট নিয়ে মত্ত হলে চলবে না। এনআরসি নিয়ে সজাগ থাকতে হবে, কারণ আগামী ১৫ ডিসেম্বর নাম অন্তর্ভুক্তির অন্তিম দিন। তিনি বলেন, ৪০ লক্ষ মানুষের নাম এনআরসিতে নেই। যদি এই পর্যায়ে নাম অন্তর্ভুক্ত না হয় তবে কিছু করার থাকবে না। এআইইউডিএফ চায় না একজন বিদেশীও আসামে থাকুক। আর এজন্য প্রকৃত ভারতীয় নাগরিক বিদেশি হলে এআইইউডিএফ বসে থাকবে না। তিনি পঞ্চায়েত নির্বাচনে নির্দল প্রার্থীদের একটিও ভোট না দেয়ার আহ্বান জানান। তিনি কৌতুকের সুরে বলেন,নির্দলদের ভোট নয় কিল মেরে বসিয়ে দিন।