টিডিএন বাংলা ডেস্ক: দেশজুড়ে চলছে নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ। প্রতিবাদে দেশের আনাচে কানাচে গড়ে উঠেছে একাধিক শাহিনবাগ। এর মধ্যেই চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটল বিজেপি শাসিত যোগী রাজ্য উত্তরপ্রদেশে। সম্প্রতি, সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে একটি খবর। নথি খুঁজতে করে গেছেন এক কংগ্রেস নেতা। সিএএ বিরোধী আন্দোলন গোটা দেশে ক্রমশ তীব্র হচ্ছে। সোশ্যাল মিডিয়া প্রচার শুরু হয়েছে, “ কাগজ দেখাব না’। অনেকেই বলছেন, পূর্ব পুরুষের নথিপত্র কোথায় পাব? এই পরিস্থিতিতে এক অভিনব ঘটনা ঘটিয়েছেন উত্তরপ্রদেশের প্রয়াগরাজের কংগ্রেস নেতা হাসিব আহমেদ। পূর্বপুরুষদের কবরে গিয়ে সিএ-র জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের জন্য প্রার্থনা করছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার হাসিব আহমেদ তার অনুগামীদের সঙ্গে নিয়ে পূর্বপুরুষদের কবরস্থানে পৌঁছে যান। সেখানে কবরের সামনে গিয়ে রীতিমতো প্রার্থনা করেন তিনি নাগরিকত্ব প্রমাণের কাগজ পাওয়ার জন্য। তিনি জানান, তার নাগরিকত্ব প্রমাণের জন্য যে নথি প্রয়োজন, তা তাঁর পূর্বপুরুষদের কাছেই ছিল। তারা সে সব কোথায় রেখে গেছেন তিনি জানেন না। তাই একমাত্র পূর্বপুরুষরাই তার নাগরিকর প্রমাণ করার ব্যাপারে সাহায্য করতে পারবে। সেই কারণেই এই বিশেষ প্রার্থনা।

কংগ্রেস নেতা আরও দাবি করেন, পূর্বপুরুষরা যদি নাগরিকত্ব প্রমাণের কাগপত্র দিতে না পারেন, তাহলে মোদি সরকারকে তিনি অনুরোধ করবেন যেন তার এবং তার পরিবারের সঙ্গে এই কবর খুঁড়ে তার পূর্ব পুরুষদেরও ডিটেনশন সেন্টারে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়। কারণ তার পূর্বপুরুষদের কাছেও নাগরিকত্ব প্রমাণের কোনও কাগজ নেই। কংগ্রেস নেতার এই ঘটনা সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে ইতিমধ্যেই।

উল্লেখ্য, কেন্দ্রের মোদী সরকারের বিতর্কিত নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে দেশব্যাপী বিক্ষোভ অব্যাহত। বিজেপি শাসিত উত্তর প্রদেশে বিক্ষোভের আগুন জ্বলছে। বিক্ষোভকারীদের সবক শেখাতে পুলিশকে গুলি চালানোর নির্দেশ দেয় খোদ মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যানাথ। এরপর পুলিশের গুলিতে মৃত্যু হয় ২১ জনের। আহত হন অনেকেই।