টিডিএন বাংলা ডেস্ক : উনিশের ভোটের লড়াইয়ে কংগ্রেস থেকে কারা কারা লড়বেন? তা এই মাসের শেষেই চূড়ান্ত করবেন রাহুল গান্ধীরা। চলতি মাসের শেষেই প্রার্থী বাছাই প্রকৃয়া শেষ হবে বলে জানিয়েছেন কংগ্রেসের কে পি বেনিগোপাল। অন্যদিকে চলতি মাসের তৃতীয় সপ্তাহে জাতীয় স্তরে কংগ্রেসের লোকসভা ভোটে প্রচার কর্মসূচী শুরু করা হতে পারে বলে সূত্র মারফত জানা গিয়েছে। উনিশের ভোটযুদ্ধে তরুণ প্রজন্ম ও মহিলাদের এবার বেশি গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে বলে খবর। বিশেষত পিছিয়ে পড়া শ্রেণীকে এবার গুরুত্ব দিতে চাইছে কংগ্রেস। এ প্রসঙ্গে কংগ্রেস সভাপতি বলেছিলেন, ভোটের ময়দানে নতুন মুখকেই প্রাধান্য দেয়া হবে।

অন্যদিকে লোকসভা ভোটের আগে প্রিয়াঙ্কার সক্রিয় রাজনীতিতে যোগদান কংগ্রেসকে বাড়তি অক্সিজেন যুগিয়েছে। আগামী সপ্তাহেই লক্ষ্মৌ পাড়ি দিচ্ছেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। ১১ তারিখ রাহু, প্রিয়াঙ্কা একসঙ্গে রোড শো করবেন বলে জানা গিয়েছে। রাহুল প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে থাকবেন জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়াও। উল্লেখ্য পূর্ব উত্তর প্রদেশের সাধারণ সম্পাদক পদে নিয়োগ করা হয়েছে প্রিয়াঙ্কাকে। পূর্ব উত্তর প্রদেশে যে ৪০ টি লোকসভা কেন্দ্রের দায়িত্বে রয়েছেন প্রিয়াঙ্কা তার মধ্যে রয়েছে মোদি গড় বারাণসী এবং যোগী আদিত্যনাথের গোরক্ষপুর।

এদিকে লোকসভা ভোটের আগে ঝাড়খন্ড মহাজোট গড়ছে কংগ্রেস। জেএমএম, বাবুলাল, মরান্ডির ঝাড়খন্ড বিকাশ মোর্চা ও আরএলডি সঙ্গে জোটের পথে রাহুল গান্ধীরা।জেএমএমের ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট হেমন্ত সোরেনের সঙ্গে দেখা করে এ ব্যাপারে বোঝাপড়া করেছেন স্বয়ং রাহুল। সূত্রে জানা গিয়েছে, ১৪ টি লোকসভা আসন এর মধ্যে ৭টি তে লড়তে পারে কংগ্রেস। অন্যদিকে ৪ টি আসনে লড়তে পারে জেএমএম। ২ টি আসনে লড়তে পারে জেভিএম আরএলডি।

আর এ প্রসঙ্গে ঝাড়খন্ডের দায়িত্বে থাকা কংগ্রেসের আর পি এন সিং সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, লোকসভা ভোটে বেশি সংখ্যক আসনে কংগ্রেস লড়বে। বিধানসভা ভোটে বেশি সংখ্যক আসনে লড়বে জেএমএম। এ সিদ্ধান্তই নেয়া হয়েছে। কংগ্রেসের নেতৃত্বে লোকসভা ভোটের প্রচার করা হবে। বিধানসভা ভোটের প্রচার করা হবে হেমন্ত সোরেনের নেতৃত্বে।

অন্যদিকে,সাংসদে নাগরিকত্ব বিলের বিরোধিতা জানানো হবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে কংগ্রেস নেতৃত্ব। সাংসদে এই বিল আনা হলে পাস করতে দেয়া হবে না বলে স্পষ্ট জানিয়েছেন কংগ্রেস সভাপতি।রাজ্যসভায় এই বিল আনা হলে, অন্য দলগুলোর সঙ্গে আলোচনা করে বিরোধিতার পথে হাঁটবে কংগ্রেস এমনটাই জানিয়েছেন,কংগ্রেসের মূখপাত্র রণদীপ সিং সুরজেওয়ালা।