টিডিএন বাংলা ডেস্ক: দিল্লিতে পরিকল্পিতভাবে মোদি সরকার ও আরএসএস হিংসার ঘটনা ঘটাচ্ছে, এমনটাই অভিযোগ করলেন সিপিআইএম নেতা তথা পলিটব্যুরো সদস্য মহম্মদ সেলিম। বৃহস্পতিবার আলিমুদ্দিনে এক সভায় এই অভিযোগ করেন তিনি। তিনি দিল্লির অশান্ত পরিবেশ নিয়ে তীব্র ধিক্কার জানিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের গাফিলতির দিকে আঙুল তুলেছেন।

তিনি জানান, “২০০২ সালে গুজরাট কাণ্ডের পর দিল্লিতে পরিকল্পিতভাবে এই ঘটনা ঘটাচ্ছে সংঘ পরিবার। পুলিশ প্রশাসন হয় অন্যদিকে তাকিয়ে রয়েছে, নয়তো নিশ্চুপ রয়েছে।”

ক্ষোভ প্রকাশ করে তিনি এদিন জানান, “সংঘ পরিবারের প্ররোচনায় নয়, সরাসরি হিংসায় অংশ নিয়েছে”। মহম্মদ সেলিম অভিযোগ করে বলেন, “ট্রেন্ড দাঙ্গাবাজ তৈরি করা হচ্ছে। বাজারগুলোকে টার্গেট করা হয়েছে।”

একইসঙ্গে এদিন দিল্লি পুলিশকেও তিনি একহাত নেন। দিল্লি পুলিশ ইচ্ছে করে ঘটনার দিকে নজর দিচ্ছে না বলে অভিযোগ তোলেন তিনি। অপরদিকে এই ঘটনার জন্য দিল্লি পুলিশের সম্মান নষ্ট হচ্ছে বলে মত প্রকাশ করেন সেলিম। দিল্লি কাণ্ডে বিচার ব্যবস্থাকে প্রভাবিত করার চেষ্টা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ তোলেন সেলিম। বলেন, “দিল্লি কাণ্ডের বিরুদ্ধে এফআইআর কেন হয়নি জানতে চাওয়ায় রাতারাতি দিল্লি হাইকোর্টের বিচারপতি বদলি করা হচ্ছে”।

নগরীকত্ব সংশোধী আইন ও জাতীয় নাগরিকপঞ্জীর বিরোধিতাকে কেন্দ্র করেন সংঘর্ষের জেরে দিল্লির পরিস্থিতি ক্রমশ জটিল হয়ে উঠছে। বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। নতুন করে গন্ডগোল না ছড়ালেও বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত দিল্লির সংঘর্ষে মৃত বেড়ে ৩৪।