টিডিএন বাংলা ডেস্ক: লোকসভা নির্বাচনের জন্য ১৮৪ জনের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করেছে বিজেপি। এর মধ্যে ৩৫জন প্রার্থীর বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা রয়েছে। এবার নির্বাচনে `দাগি’ প্রার্থীদের আটকাতে বেশ কিছু পদক্ষেপ নিয়েছে কমিশন। তার মধ্যে অন্যতম, প্রার্থীদের বিরুদ্ধে কোনো মামলা থাকলে তা সংবাদ মাধ্যমে বিজ্ঞাপন দিয়ে ঘোষণা করতে হবে। তাও বিজেপির প্রথম তালিকায় ফৌজদারি মামলায় জড়িয়ে পড়া প্রার্থীদের রমরমা। এই নিয়ে প্রশ্ন তুলছে বিরোধীরা।

বৃহস্পতিবার লোকসভা নির্বাচনের জন্য ১৮৪ জনের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করেছে বিজেপি। ঝাড়াই বাছাই করতে গিয়ে বাদ পড়েছেন খোদ লাল কৃষ্ণ আদবানি। পাশাপাশি এবার টিকিট দেওয়া হয়নি উত্তরপ্রদেশের ৬ সাংসদকে। বিজেপির প্রথম প্রার্থী তালিকায় থাকা ১৯ শতাংশ প্রার্থীর বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা রয়েছে। ১৮৪ জনের মধ্যে এদের সংখ্যা ৩৫। মহারাষ্ট্রের হংসরাজ গঙ্গারাম আহিরের বিরুদ্ধে ২০১৪ সালে ১১টি ফৌজদারি মামলা রয়েছে। তিনি বর্তমানে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। ওড়িশার প্রতাপ সারাঙ্গির বিরুদ্ধেও রয়েছে ফৌজদারি মামলা।

উত্তরপ্রদেশে ৬ সাংসদকে বাদ দেওয়া হলেও ১৮৪ জন প্রার্থীর মধ্যে এমন ৭৮ জন রয়েছেন যাঁরা ফের টিকিট পেয়েছেন। উত্তরপ্রদেশ থেকে এবার টিকিট দেওয়া হয়নি কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কৃষ্ণ রাজ ও কেন্দ্রীয় তফসিলি কমিশনের চেয়ারম্যান রাম শঙ্কর কাঠেরিয়াকে। এছাড়াও টিকিট পাননি অংশুল ভার্মা, বাবুলাল চৌধুরি, অঞ্জু বালা, সত্যপাল সিং।