টিডিএন বাংলা ডেস্ক: নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরুদ্ধে একটানা ৩৬ দিন ধরে শান্তিপূর্ণ ভাবে লাগাতার অবস্থান বিক্ষোভ চলছে দিল্লীর শাহীনবাগে। দিল্লির হাড় ফাটানো ঠাণ্ডাকে উপেক্ষা করে এতে অংশ গ্রহণ করেছেন হাজার হাজার মহিলা। একেবারে শিশু থেকে শুরু করে বৃদ্ধ বয়সের মহিলারা অবস্থান নিয়েছেন। দিন যত গড়াচ্ছে বিক্ষোভ সমাবেশে লোকসংখ্যা ক্রমশই বাড়ছে। হাজার হাজার মহিলার সেই অবস্থান বিক্ষোভকে ঘিরে যানবাহন চলাচল ও রাস্তাঘাটে চলাচল করতে অসুবিধা হচ্ছে এই অভিযোগ তুলে বিক্ষোভকারীদের উঠতে বলে হুঁশিয়ারি দিল দিল্লি পুলিশ।

টুইটারে পুলিসের তরফে বিক্ষোভকারীদের উদ্দেশ্যে বলা হয়েছে, বিক্ষোভ প্রদর্শনের ফলে দিল্লি ও এনসিআর এর রাস্তা বন্ধ হয়ে গিয়েছে। বৃদ্ধ মানুষজন, রোগী ও পড়ুয়ারা এর জন্য প্রবল অসুবিধায় পড়ছেন। দিল্লি পুলিশ আরও বলেছে, শাহিনবাগের বিষয়টি দিল্লি হাইকোর্টে উঠেছে। বিক্ষাভকারীদের কাছে আবেদন তাঁরা যেন জনস্বার্থে পুলিসের সঙ্গে সহায়তা করেন।

উল্লেখ্য, একই অভিযোগে কদিন আগে দিল্লী হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন তুষার সহদেব এবং রমন কালরা নামে দুই ব্যক্তি। যদিও সেই অভিযোগ খারিজ করে দিল্লী হাইকোর্ট জানিয়ে দিয়েছে শাহীনবাগ এলাকার বিক্ষোভরত কাউকে সরানো যাবে না। প্রধান বিচারপতি ডিএন প্যাটেল এবং বিচারক সি হরিশঙ্করের বেঞ্চ জানিয়ে দেয় কোনও বিক্ষোভকারীকেই অন্যত্র সরানো যাবে না।