টিডিএন বাংলা ডেস্ক: বিশ্বের দূষিত শহরগুলির মধ্যে রয়েছে শীর্ষ স্থানে অবস্থান রয়েছে ভারতের রাজধানী দিল্লি। এছাড়াও পাঁচ নম্বরে রয়েছে ভারতেরই আরও একটি শহর তথা পশ্চিমবঙ্গের রাজধানী কলকাতা, এমটাই সমীক্ষার রিপোর্ট পেশ করেছে স্কাইমেট নামে একটি বেসরকারি আবহাওয়া বিশেষজ্ঞ সংস্থা। বাণিজ্যনগরী, ফিল্মসিটি মুম্বইও যে নিরাপদ, তা কিন্তু নয়। স্কাইমেটের সমীক্ষা বলছে, মুম্বই রয়েছে ন-নম্বরে।

দিল্লির বায়ুদূষণ শুধু দেশ নয়, গোটা বিশ্বের আলোচনার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। স্কাইমেটের সমীক্ষা রিপোর্ট অনুযায়ী, দিল্লির এয়ার কোয়ালিটি ইন্ডেক্স হল (একিউআই) ৫২৭। কলকাতার একিউআই হল ১৬১। আর মুম্বইয়ের ১৫৩।

স্কাইমেটের এই সমীক্ষা জানাচ্ছে, দিল্লিতে বিগত ৯ দিন ধরেই ভয়াবহ অবস্থা চলছে। বায়ুদূষণের মাত্রা এতটাই বেশি, তা মানুষের শরীরে নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে বাধ্য। গোটা দিল্লিতেই যে বায়ুদূষণের মাত্রা ৫২৭ একিউআই, তা কিন্তু নয়। দেখা গিয়েছে, দিল্লির উপকণ্ঠে বিভিন্ন অঞ্চলে কোথাও তা ৬০০ বা ৭০০-রও বেশি। ন্যাশনাল ক্যাপিটাল রিজিওন বা রাজধানী এলাকার অন্তর্গত ফরিদাবাদে একিউআই হল ৭২৮।

সেই তুলনায় কলকাতায় বায়ুদূষণের মাত্রা যদিও কম, তবে স্বস্তির শ্বাস ফেলার অবকাশ নেই। কলকাতা মহানগরীতে যে একিউআই রয়েছে, পরিহবেশ বিশেষজ্ঞরা বলছেন, তা কম বিপজ্জনক নয়। দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদের এক বিশেষজ্ঞ জানান, কলকাতা বায়ুদূষণের নিরিখে গোটা পৃথিবীর মধ্যে পঞ্চম স্থানে রয়েছে। তিনি জানান, দিল্লির মতো কলকাতাতেও দীপাবলির পর দূষণের মাত্রা বহুগুণ বেড়েছে। সামনে বিয়ের মরশুমে আতসবাজি পোড়ালে, বায়ুদূষণের মাত্রা আরও বাড়বে।